শ্যামনগর হানাদার মুক্ত দিবস র‌্যালি ও আলোচনা সভা


শ্যামনগর প্রতিনিধি : ১৯৭১ এর মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ১৯শে নভেম্বর সর্ব প্রথম শ্যামনগর থানা হানাদার মুক্ত হয়। সে জন্য উক্ত দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড ও সন্তান কমান্ড শ্যামনগর উপজেলা শাখার উদ্যোগে দিন ব্যাপি বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও নব নির্বাচিত মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের পরিচিতি, আলোচনা সভা ও জারি গানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বাবু দেবী রঞ্জন মন্ডল, প্রধান অতিথি হিসেবে মুঠোফোনে বক্তব্য প্রদান করেন জনাব এস,এম জগলুল হায়দার এমপি ও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রাক্তন এমপি ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক জনাব এ কে ফজলুল হক। প্রধান আলোচক ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জনাব মোশাররফ হোসেন (মশু)। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউল হক দোলন, শ্যামনগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এস,এম জহুরুল হায়দার (বাবু), দৈনিক দক্ষিণের মশাল সম্পাদক অধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহী, শ্যামনগর উপজেলা ডেপুটি কমান্ডার গাজী আবুল হোসেন, মাস্টার নজরুল ইসলাম, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল মজিদ, সাতক্ষীরা জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক মোঃ আবু রায়হান তিতু, যুগ্ন আহবায়ক লায়লা পারভীন সেঁজুতি, শ্যামনগর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সভাপতি রফিকুল ইসলাম (বাবলু), সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান ডলার, এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড ও সকল ইউনিয়নের সর্বস্তরের মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ডের নেতৃবৃন্দ ও সুশিল সমাজের নেতৃবৃন্দ। ১৯৭১ এর ভয়াবহ কালো চিত্রের কথা তুলে ধরেন বক্তাগন তাদের বক্তব্যে আরো বলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের বড় একটা অবদান রাখতে হবে এবং দেশের উন্নয়নরে ধারা অব্যহত রাখতে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করতে হবে। আলোচনা শেষে জারী গান পরিবেশিত হয়। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন শ্যামনগর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক মোঃ সাঈদুজ্জামান সাঈদ ।

Related posts