ভূমিহীন সলেমান হত্যায় ওহাব আলীকে প্রধান আসামি করে ১৫ জনের নামে মামলা, আটক ১


আসাদুজ্জামান : সাতক্ষীরার আশাশুনির কৈখালিতে ভূমিহীন ও আওয়মীলীগ নেতা সলেমান গাজীকে জবাই করে হত্যার ঘটনায় অপর এক ভুমিহীন নেতা ওহাব আলী পেয়াদাকে প্রধান আসামী করে ১৫ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। নিহতের ভাই সামিউল্লাহ বাদী হয়ে সোমবার রাতে আশাশুনি থানায় এ হত্যা মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ এজাহার নামীয় আসামী আমিরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে।
আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহীদুল ইসলাম শাহীন জানান, নিহতের ভাই সামিউল্লাহ বাদি হয়ে ওহাব আলী পেয়াদাকে প্রধান আসামী করে ১৫ জনের নাম উল্লেখ কর একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ এজাহার নামীয় আসামী আমিরুলকে গেফতার করছে। বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।
উল্লেখ্য, এর আগে রোববার রাতে সলেমান গাজি তার ভাগিনা আবু সালেক ও চাচাতো ভাই আবদুর রশীদের সাথে বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি দোকানে ক্যারাম খেলছিলেন। রাত ৯ টার দিকে তারা বাড়ি ফিরলে এরপর তার কাছে একটি টেলিফোন আসে। এ সময় তিনি আবার বাড়ি থেকে বাইরে চলে আসেন। সকালে কৈখালি পানির ট্যাঙ্কির কাছে বেড়িবাঁধের ধারে তার জবাইকৃত লাশ পাওয়া যায়। নিহত সলেমান গাজি শোভনালী ইউনিয়নের ঝায়ামারী গ্রামের মৃত মোকছেদ আলী গাজীর ছেলে। তিনি সেখানকার ৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি।

Related posts