সততার দৃষ্টান্ত রাখলেন কলেজের ছাত্রী সালমা


তালা প্রতিনিধি : ৪০ হাজার টাকা পেয়েও তা ফিরিয়ে দিয়ে সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো তালা মহিলা কলেজের মেধাবী ছাত্রী সালমা সুলতানা। একাদশ শ্রেণিতে পড়–য়া সালমা সুলতানা মালিককে টাকা ফিরিয়ে দেওয়ায় গোটা কলেজ ক্যাম্পাস সহ সচেতন মহলে তাকে নিয়ে হৈ চৈ পড়ে যায়।জানা গেছে, উপজেলার আটারই গ্রামের জালাল জোয়াদ্দার এর মেধাবী মেয়ে সালমা সুলতানা তালা মহিলা ডিগ্রি কলেজের হোষ্টেলে থেকে একাদশ শ্রেণিতে অধ্যায়নর করছে। বুধবার সন্ধ্যায় তিনি তালা বাজারের অসিম ঘোষ এর দোকান থেকে এক রিম সাদা কাগজ ক্রয় করে কলেজের হোষ্টেলে ফিরে যায়। পরে ওই কাগজ খুলেই তার মধ্যে ৪০ হাজার টাকা পান। তৎক্ষনাৎ বিষয়টি সালমা সুলতানা কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুর রহমানকে অবহিত করেন। কলেজ অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান বিষয়টির খোঝ-খবর নিয়ে টাকার মালিক মুদি ব্যবসায়ী অসিম ঘোষকে কলেজে ডেকে নিয়ে বুধবার রাতে উক্ত টাকা আনুষ্ঠানিক ভাবে ফেরৎ দেন। এসময় হোষ্টেলে অবস্থারত ছাত্রীরা সহ তালার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। এবিষয়ে অসিম ঘোষ জানান, তিনি মঙ্গলবার রাতে সাদা কাগজের মধ্যে ৪০ হাজার টাকা লুকিয়ে রাখেন। কিন্তু উক্ত টাকার কথা ভূলে যাওয়ায় টাকা সহ ১রিম সাদা কাগজ সালমার কাছে বিক্রয় করেন। উক্ত টাকা ফেরৎ পেয়ে অসিম ঘোষ মহা খুশি (!) হয়েছেন। তালা মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুর রহমান জানান, কলেজের হোষ্টেলে অবস্থানরত ছাত্রীদের প্রতি ১৫দিন পর পর নীতি, নৈতিকতা ও সততার উপর উদ্বুদ্ধ করা হয়। এরফলে সালমা সুলতানা উক্ত টাকা ফেরত দিতে উৎসাহ পেয়েছেন। এছাড়া ব্যক্তি জীবনে সম্ভ্রান্ত পরিবারের মেয়ে সালমা অত্যান্ত সৎ এবং ভাল মেয়ে বলে কলেজ অধ্যক্ষ জানান। সততার দৃষ্টান্ত সালমা সুলতানা জানান, অন্যের টাকার প্রতি কোনও লোভ না থাকায় উক্ত ৪০ হাজার টাকা পাওয়ার পরপরই কলেজ অধ্যক্ষকে অবহিত করি। সঠিক মালিকের কাছে টাকা ফেরৎ দিতে পেরে তিনিও আনন্দিত- জানিয়ে অন্যদেরও সততার পথে এগিয়ে আসার আহবান জানান। এদিকে, ৪০ হাজার টাকা পেয়ে তা মালিকের নিকট ফিরিয়ে দেওয়ার মত সততা রাখায় কলেজের অধ্যক্ষ, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সহ সর্বস্তরের মানুষ সালমা সুলতানাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Related posts