তালার ধানদিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে প্রতিবাদসভা


নিজস্ব প্রতিবেদক :
তালা উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে ধানদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। রোববার সকাল ১০টায় ধানদিয়া ইউনিয়নের ফুলবাজারে এলাকায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভার মাধ্যমে তাদেরকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ডা: সহিদুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন, তালা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক সন্তোষ বিশ্বাস, ধানদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মাস্টার শহিদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম খাঁন, ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান, ২নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি মোমিন, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুস সোবহান খাঁ, আকতারুজ্জামান, আবুল কালাম খাঁ, আব্দুর রকিব, সুকুমার দাশ, জাকির হোসেন, যুবলীগ নেতা রিপন হোসেন, মিলন, হাসানুজ্জামান, ছাত্রলীগ নেতা রাজু ইসলাম, আফজাল খান প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, আমরা জানতে পেরেছি ধানদিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নতুন কমিটি দেওয়া হয়েছে। উক্ত কমিটিতে সভাপতি হিসাবে নাহিদ হাসান প্রান্তকে মনোনীত করা হয়েছে। কিন্তু নাহিদ হাসান প্রান্তের পরিবারের সকলেই জামায়াত-বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত। সে নিজেও ছাত্রশিবিরের সাথে সম্পৃক্ত ছিলো। বিগত ২০১৩ সালে বর্তমান সরকার উৎখাতের জন্য প্রান্তের নেতৃত্বে ধানদিয়া বাজারে নাশকতা ও মিছিল করেছিল। যা অত্র এলাকার সকলেই অবগত আছেন। আমাদের নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করে আওয়ামীলীগের সংগঠনকে ক্ষতিগ্রস্থ করতে ওইসব ব্যক্তিরা দলে অনুপ্রবেশ করে দলকে ক্ষতিগ্রস্থ করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। দলের মধ্যে বিভেদ থাকবে। নতুন নেতৃত্ব আসবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তাই বলে কোন স্বাধীনতা বিরোধীরা দলের গুরুত্বপদ দখল করবে তা হতে পারে না। অবিলম্বে ওই কমিটি বিলুপ্তি করে ত্যাগী এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসীদের মধ্যে থেকে নেতা নির্বাচিত করতে হবে। তা না হলে কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে ওই কমিটির নেতৃবৃন্দকে ইউনিয়ন থেকে বিতাড়িত করা হবে। এবিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

Related posts