সাতক্ষীরার আশাশুনিতে বজ্রপাতে একজন নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরায় পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় একই পরিবারের তিন জনসহ পাঁচ জন নিহত হয়েছে।
কালিগঞ্জের ৪ জনের মৃত্যুর পাশাপাশি আশাশুনির বুধহাটায় এক জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সকালে বৃষ্টি শুরু হলে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা মাদরা গ্রামের জুয়েল হোসেন বাড়ির পাশে একটি গোয়াল ঘরে আশ্রয় নেয়। বৃষ্টি শেষ হওয়ার পর গোয়াল ঘর থেকে বাইরে বের হলেই হঠাৎ বজ্রপাত ঘটলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মো.আব্দুস সালাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

অন্যদিকে, সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের গড়ইমহল, বিজয়নগর ও আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা মাদরা গ্রামে এঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন, কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের গড়ইমহল গ্রামের আদম আলী গাজীর ছেলে আল আমিন (২২)ও রবিউল ইসলাম (২০), আল আমিনের স্ত্রী সাবিনা খাতুন (১৮), একই উপজেলার জিয়নগর গ্রামের মৃত হাতিম আলী গাজীর ছেলে মুনছুর আলী গাজী (৫০) এবং আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা মাদরা গ্রামের কবির হোসেন সরদারের ছেলে জুয়েল হোসেন (২৪)।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সকালে ঝড়বৃষ্টির সময় কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের গড়ইমহল গ্রামের আদম আলী গাজীর ছেলে আল আমিন ও রবিউল ইসলাম এবং আল আমিনের স্ত্রী সাবিনা খাতুনসহ তিনজন বিলের মধ্যে ফাঁকা জায়গায় একটি টিনের ঘরের মধ্যে ছিল। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হঠা বিকট শব্দে বজ্রপাত হলে টিনের চাল ছিদ্র হয়ে তাদের উপর পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়।

এদিকে, একই সময়ে কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর ইউনিয়নের বিজয়নগর গ্রামের মুনছুর আলী গাজী বাড়ির পাশে একটি বিলে জমির আইল কাটছিল। এসময় হঠাৎ বজ্রপাত ঘটলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আজিজুর রহামন জানান, কালিগঞ্জ উপজেলার রতনপুর ইউনয়নের গড়ইমহল ও বিজয়নগরে বজ্রপাতে একই পরিবারের তিনজনসহ চার জন নিহতের ঘটনাটি নিশ্চিত করেছে।

Related posts