ভারতে কন্যাশিশুকে জীবন্ত কবর দেয়ার চেষ্টার ভিডিও ভাইরাল

বিদেশের খবর: নবজাতক কন্যাকে জীবন্ত কবর দেওয়ার সময় তার বাবা ও দাদাকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভারতের হায়দ্রাবাদে জুবিলি বাসস্ট্যান্ডের নির্জন এলাকায় শিশুটি জন্মানোর পরপরই তাকে মাটিচাপা দেওয়ার চেষ্টা চলে।

শুক্রবার (১ নভেম্বর) সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে এ তথ্য দেওয়া হয়।আটক হওয়া ব্যক্তিরা করিমনগরের বাসিন্দা।

দেশটির সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা যায়, নবজাতকটিকে মাটিচাপা দেওয়ার জন্য তার বাবা ও দাদার তৎপরতা চোখে পড়ে কুমার নামে স্থানীয় এক অটোরিকশা চালকের। কুমার জানান, বাজারের ব্যাগে কিছু একটা নিয়ে গোপনে তাদের বাসস্ট্যান্ডের পেছনে যেতে দেখেন তিনি। সন্দেহ হওয়ায় আড়ালে লুকিয়ে দেখতে থাকেন দু’জনের কর্মকাণ্ড। এসময় মাটিতে গর্ত করতে দেখে সন্দেহ আশঙ্কায় রূপ নেয় তার। পাশাপাশি ফোঁপানির আওয়াজ কানে আসে কুমারের। দেরি না করে পুলিশকে ফোন করেন তিনি।

ফোন পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুটিকে উদ্ধার করে গান্ধী হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। এরপর হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে নবজাতকের বাবা ও দাদাকে আটক করা হয়। তারা তেলেঙ্গানার করিমনগরের বাসিন্দা বলে জানা যায়।

আটক ওই দুজন দাবি করেন, চিকিৎসায় অপারেশন ব্যর্থ হলে তাদের নাতনি মারা যায়। পাবলিক মাসে মরদেহ নেওয়া যাবে না, তাই তারা মাটি খুঁড়ছিলেন। মরদেহ সমাহিত করার জন্য।

পুলিশ কনস্টেবল ভেঙ্কাতা রামাকৃষ্ণ বলেন, কন্যা সন্তান হওয়ার কারণেই শিশুটিকে জীবন্ত হত্যা করতে চেয়েছিলেন তারা। এ বিষয়ে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

Related posts