নির্বাচন কমিশনের ইফতারিতেও বৈষম্য!

দেশের খবর: নির্বাচন কমিশনের আমন্ত্রেণ ইফতার মাহফিলে যোগ দিয়েছিলেন দৈনিক কালের কণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি কাজী হাফিজ। সেখানে যে বিব্রতকর পরিস্থিতির মুখোমুখি তিনি হয়েছেন তা ছবিসহ তুলে ধরেছেন নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে।

কাজী হাফিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসটি নিচে হুবহু দেয়া হলো

“এই নির্বাচন কমিশনের পক্ষেই এমনটা সম্ভব। পবিত্র রমজানের ইফতার অনুষ্ঠানে এক ছাদের নিচে বসে আজ সাধারণ খাবারের অতিরিক্ত হিসেবে নিজেরা খেলেন পোস্তা বাদামের শরবত, লাল আঙ্গুর আর চিকেন ভুনা। কমিশন সচিবালয়ের উঁচু পদের কর্মকর্তারাও এই বিশেষ ভোগ থেকে বঞ্চিত হননি। কিন্তু সাধারণ কর্মকর্তা- কর্মচারি আর সাংবাদিকরা এসব খাবার পেলেন না। ভিন্ন মেনুতে তাদের জন্য বরাদ্দ টেং এর শরবত আর মাটন তেহারির প্যাকেট ।

নির্বাচন কমিশনার আর কমিশনের উঁচু পদের কর্মকর্তাদের মেনুর সাথে সাধারণ কর্মকর্তা -কর্মচারি ও সাংবাদিকদের মেনুটা পড়লেই বৈষম্যটি বুঝতে পারবেন। সৌভাগ্যবানদের জন্য ১৪টি আইটেম আর হতভাগ্যদের জন্য ১১টি।”

Related posts