সাতক্ষীরায় আ. লীগ নেতা তোতার বাড়ির জুয়ার আসর থেকে টাকা ও সরঞ্জামসহ ৯ জুয়াড়ি আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সৈয়দ হায়দার আলি তোতার বাড়ি থেকে নয় জুয়াড়িসহ জুয়ার সরঞ্জাম আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।
আজ বুধবার সন্ধ্যায় গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে শহরের মুনজিতপুরে হায়দার আলি তোতার বাড়িতে এই অভিযান চালানো হয়। এ সময় বেশ কয়েকজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারান চন্দ্র পাল জানান, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইলতুৎমিশের নেতৃত্বে এই অভিযান চালানো হয়। এ সময় নয় জুয়াড়িকে হাতেনাতে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে ৪৯ হাজার টাকা কয়েক কার্টুন তাস, গোলাকার টেবিল এবং খাতাপত্র জব্দ করা হয়েছে।

অভিযান সম্পর্কে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিটি হুবহু প্রকাশ করা হলো-

সাতক্ষীরা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ এর নেতৃত্বে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ২৫/০৯/২০১৯ খ্রিঃ তারিখ ১৮.১৫ ঘটিকার সময় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে সদর থানাধীন মুনজিতপুর গ্রামস্থ কেন্দ্রীয় ঈদ গাহ ময়দানের দক্ষিণ পার্শ্বে সৈয়দ হায়দার আলী @ তোতা, পিতা-মৃত মোকছেদ আলীর বসত বাড়ীতে অবৈধ জুয়া খেলা অবস্থায় আসামী (১) মোঃ শরীফুল ইসলাম (৪২), পিতা-মোঃ আবুল কাশেম, (২) মোঃ শাহীন হোসেন (৩৫), পিতা-মৃত আবুল ফজল, (৩) আব্দুর রাজ্জাক সরদার (৪৯), পিতা-মৃত কফিল উদ্দিন সরদার, (৪) মোঃ মাহমুদুল হক (৫৪), পিতা-মৃত মাসুদুল হক, (৫) মোঃ আলাউদ্দিন সরদার (৫৮), পিতা-মৃত সামছুদ্দিন সরদার, (৬) মোঃ কামরুজ্জামান (৫৪), পিতা-মৃত নুরুল ইসলাম, (৭) মোঃ সাইফুল ইসলাম (৪০), পিতা-মৃত ছামাদ সরদার, (৮) মোঃ জালাল সরদার (৩৪), পিতা-মৃত গনি সরদার, (৯) মোঃ গোলাম রব্বানী (৪০), পিতা-মোঃ ইরফান আলী মোল্যাদের গ্রেফতার করে। অবৈধ জুয়া খেলার আসর হতে (১) ৪৯,০০০/- টাকা, (২) ১০ (দশ) জোড়া তাস (কার্ড), (৩) ০১টি জুয়ার বোর্ড (স্কয়ারিং), (৪) ০১টি জুয়া খেলার গোল টেবিল উদ্ধার করে।
উল্লেখ্য যে, বর্ণিত সৈয়দ হায়দার আলী @ তোতা সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক। সন্ধ্যা অনুমান ১৯.০০ ঘটিকা পর্যন্ত অভিযান পরিচালিত হয়।

আটককৃতরা হলেন মো. কামরুজ্জামান, মো. আলাউদ্দিন, সাইফুল ইসলাম, গোলাম রব্বানি, শরিফুল ইসলাম, মো. শাহিন, আব্দুর রাজ্জাক, মাহমুদুল হক ও মো. জামাল।
তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

অভিযানের ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন-

Related posts