চিকিৎসায় নোবেল পেলেন যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের তিন বিজ্ঞানী

বিদেশের খবর: ২০১৯ সালে চিকিৎসা বিজ্ঞানে যৌথভাবে তিন বিজ্ঞানী বিশে^র সবচেয়ে বিখ্যাত নোবেল পুরষ্কার পেয়েছেন। শরীরে কোষগুলো কীভাবে অক্সিজেনের সহজলভ্যতার সঙ্গে খাপ খায় তা নিয়ে যুগান্তকরী গবেষণার স্বীকৃতি হিসেবে তারা এ পুরস্কার পেয়েছেন। আগামী ১০ অক্টোবর সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে তাদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হবে।

সোমবার স্টকহোমের ক্যারোলিনস্কা ইনস্টিটিউট চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পুরষ্কার ঘোষণা করে। চিকিৎসায় তিন নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী হলেন- যুক্তরাষ্ট্রের উইলিয়াম জি. কেলিন জুনিয়র, যুক্তরাজ্যের স্যার পিটার জে.র‌্যাটক্লিফ ও যুক্তরাষ্ট্রের গ্রেগ এল. সেমেনজা। স্টকহোমে ক্যারোলিনস্কা ইনস্টিটিউট এক ঘোষণায় জানায়, চিকিৎসায় নোবেল জয়ী এই তিন বিজ্ঞানী মোট ৯০ লাখ সুইডিশ ক্রোনার পাবেন।

গত বছর প্রাণঘাতী ক্যান্সারের চিকিৎসায় বৈপ্লবিক এক থেরাপি আবিষ্কারের ফলে চিকিৎসা বিজ্ঞানে যৌথভাবে নোবেল পুরস্কার পান মার্কিন ও জাপানি বংশোদ্ভূত দুই বিজ্ঞানী জেমস অ্যালিসন ও তাসুকু হনজু।চলতি বছর অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে বিশে^র বিভিন্ন দেশের ২২৩ জন ব্যক্তি ও ৭৮ প্রতিষ্ঠান নোবেল পুরষ্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছেন।
১৯০১ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত চিকিৎসাশাস্ত্রে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়েছে ১০৯ বার। এর মধ্যে ১২ বার চিকিৎসার নোবেল পেয়েছেন নারীরা। এছাড়া মাত্র একজন করে বিজয়ী এই পুরস্কার জিতেছেন ৩৯ বার।

নোবেল কমিটি জানায়, চলতি মাসের ৮ অক্টোবর বিকেল পৌনে ৪টায় দ্য রয়্যাল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স থেকে পদার্থবিদ্যায়, ৯ অক্টোবর পৌনে ৪টায় রয়্যাল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স থেকে রসায়নবিদ্যায়, ১০ অক্টোবর বিকেল ৫টায় দ্য রয়্যাল সুইডিশ একাডেমি থেকে সাহিত্য এবং ১১ অক্টোবর নরওয়ের রাজধানী অসলো থেকে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করবে।

Related posts