মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে সূচনা হয়েছিল অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের-সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে

নিজস্ব প্রতিনিধি: মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে সূচনা হয়েছিল অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সেদিন ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে বাঙ্গালি জাতি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে মাতৃভূমির স্বাধীনতা অর্জন করেছিল। রচিত হয়েছিল এক অসাম্প্রদায়িক সংবিধান। সেদিনের সেই সম্প্রীতির সেতুবন্ধন আজও অম্লান। আগামিতেও তা অটুট থাকবে।

সোমবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে ‘দুর্গোৎসব ও বাংলাদেশ, সম্প্রীতির সেতুবন্ধন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন অতিথিরা। তারা বলেন, বাংলাদেশের মানুষ স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম চর্চা করে থাকে। তারা ধর্মীয় উৎসবকে ভাগাভাগি করে নেয়। এখানে মসজিদে আজানের ধ্বনি ওঠে। আর পাশেই মন্দিরে হয় পূজা অর্চনা। সম্প্রীতির এই সেতুবন্ধনকে আরও দৃঢ় করে তুলতে আমাদের কাজ করতে হবে।

প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তারা রাখেন, সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডা. আ ফ ম রুহুল হক এমপি।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন, তালা কলারোয়া আসনের সংসদ সদস্য এড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান, জেলা প্রশাসক এস. এম মোস্তফা কামাল, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুনসুর আহমেদ, সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল গোলাম মহিউদ্দীন খন্দকার, সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহিন, জাতীয় গেয়েন্দা সংস্থা সাতক্ষীরার উপ-পরিচালক জাকির হোসেন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি শেখ আজহার হোসেন, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক এড. সৈয়দ ইফতেখার আলী, জেএসডি সাধারন সম্পাদক সুধাংশ শেখর সরকার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান বাবু, সিএন্ডএফ সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম, জেলা মন্দির সমিতির সভাপতি বিশ্ব নাথ ঘোষ প্রমুখ।

বক্তারা আরও বলেন, সমাজ থেকে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ মাদক ও সহিংসতা দুর করে শান্তির বারতা ছড়িয়ে দিতে হবে। সম্প্রীতির সেতুবন্ধনকে আরও দৃঢ় করে তুলতে বহুমুখী কাজ করতে হবে। আলোচনা সভা শেষে মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করা হয়।

Related posts