সাপমারা খাল পুনঃখননে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন করা হবে- গণশুনানিতে জেলা প্রশাসক

কে এম রেজাউল করিম দেবহাটা ব্যুরো: সাতক্ষীরার দেবহাটার সাঁপমারা খাল পুনঃখননে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে সরকারের আশ্রায়ন প্রকল্পের আওতায় এনে তাদেরকে বসবাসের জন্য গৃহ নির্মাণ করে দেওয়া হবে। খনন কাজে কোন অনিয়ম পেলে সংশ্লিষ্টদের ছাড় দেওয়া হবে না। তাছাড়া কোন দালালের তদবির গ্রহন করা হবে না। সরকারের উন্নয়ন কাজে যে বাধা দিতে আসবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উন্নয়নের স্বার্থে সকলকে ছাড় দিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। ভূমিহীন ও গৃহহীনদের থেকে যদি কেউ সুবিধা গ্রহন করে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বৃহষ্পতিবার বেলা ১১ টায় দেবহাটার জোয়ার গুচ্ছগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সাপমারা খাল পুনঃখনন বিষয়ে গণশুনানীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল এসব কথা বলেন।
এছাড়া প্রকৃতদের তালিকা করে আগামী ৭ দিনের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে পুনর্বাসনে জন্য সরকারী জমি নির্ধারণ করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পাঠানোর জন্য বলেন ডিসি। আপাতত ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য ঢেউটিন ও নগদ অর্থ প্রদান করা হবে বলেও জানান তিনি।
জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল তার ০১৭১৫২১২২৭৭ নাম্বারটি সকলকে দিয়ে দুর্নীতির বিষয়ে তথ্য দেওয়া আহবান জানান। তিনি বলেন, ইউনিয়ন ভূমি অফিস, এসি ল্যান্ড অফিস, ইউএনও অফিস ও ডিসি অফিস সহ যেখানেই দুর্নীতি বা হয়রানির শিকার হবেন, আমাকে জানাবেন। দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
গনশুনানিতে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মুনসুর আহমেদ, দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীন, পানি উন্নয়ন বোর্ড-১’র নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল খায়ের, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রাশিদুর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জিএম স্পর্শ, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু, সাধারণ সম্পাদক আরকে বাপ্পা, পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোডের এসও সাইদুর রহমান প্রমুখ।

Related posts