চেয়ারম্যান মোশারফ হত্যা মামলার আসামী জলিল গনপিটুনিতে নিহত !


নিজস্ব প্রতিবেদক : সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউপি চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃত তিন নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল জলিল গাইন গনপিটুৃনিতে নিহত হয়েছেন। শনিবার রাত ৯টার দিকে কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর বাজারে যুবলীগ অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত আব্দুল জলিল গাইন কালিগঞ্জ উপজেলার ইয়াকুব আলী গাইনের ছেলে।
কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান জানান, চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামী আব্দুল জলিল গাইনকে শুক্রবার ঢাকার গাজীপুর কালিয়ারকৈ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার রাত টার দিকে তাকে নিয়ে কৃষ্ণনগর বাজার এলাকায় অস্ত্র উদ্ধারে গেলে স্থানীয় জনগন তাকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে পিটিয়ে হত্য্ াকরে।
প্রত্যক্ষদর্শী সামছুর রহমান ও ছবেদ আলী জানান, চেয়ারম্যান হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ও দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে কৃষ্ণনগর হাইস্কুল মাঠে জনসভা চলছিল। এ সময় গ্রেফতারকৃত আসামী কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জলিলকে নিয়ে পুলিশ কৃষ্ণনগর বাজারে গেলে ক্ষুব্ধ জনতা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। তবে ঘটনাস্থলে বেশ কয়েক রাউণ্ড গুলির শব্দ শোনা যায়।
সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান জানান ঘটনাস্থলে লাশ ঘিরে রেখেছে পুলিশ। সেখানে এখনও বিক্ষুব্ধ জনতা অবস্থান করছে। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানান তিনি।
প্রসঙ্গত, গত ১০ সেপ্টেম্বর রাতে জাপা নেতা কৃষ্ণনগর ইউপি চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেনকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যার ঘটনায় তার বড় মেয়ে সাদিয়া পারভিন ১৯জনসহ অজ্ঞাতনামা ২০ জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করেন। এ পর্যন্ত এ মামলায় গ্রেফতারকৃত আটজনের মধ্যে তিনজন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

Related posts