সাতক্ষীরা রিপোর্টার্স ইউনিটি গঠন: রামকৃঞ্চ আহবায়ক, মাসুম সদস্য সচিব


ooooooনিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরা রিপোর্টার্স ইউনিটি গঠনের লক্ষ্যে আয়োজিত এক সভায় সাংবাদিক নেতারা বলেছেন, সাতক্ষীরার অধিকাংশ সাংবাদিক সংগঠন সাংবাদিকদের যথাযথ সুরক্ষা দিতে পাচ্ছে না। নির্যাতিত সাংবাদিকদের পাশে সাংবাদিক সংগঠনগুলোর যেভাবে দাঁড়ানোর কথা সেভাবে তারা দাঁড়াচ্ছে না।
সম্প্রতি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা এলাকায় দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা ও অনলাইন সংবাদপত্র ডেইলি সাতক্ষীরায় কর্মরত সাংবাদিক জুলফিকার আলীর ওপর হামলা হয়। সাংবাদিক জুলফিকার বর্তমানে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। একটি সংবাদ প্রকাশকে কেন্দ্র করে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও এক মেম্বরের নেতৃত্বে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা গত ১ জানুয়ারি ওই সাংবাদিকের উপর হামলা চালিয়ে তার হাতের নখ উঠিয়ে নিয়েছে। অত্যন্ত মর্মান্তিক ও লোমহর্ষক এ ঘটনার পর দুই সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও সাতক্ষীরার শীর্ষস্থানীয় কোন সাংবাদিক সংগঠন হামলাকারীদের বিচার দাবি করেনি, এমনকি একটি বিবৃতি পর্যন্ত দেয়নি। যদিও জেলার কয়েকটি বিশেষায়িত সাংবাদিক সংগঠন, বিভিন্ন উপজেলা প্রেসক্লাব, রিপোর্টার্স ক্লাব ও আঞ্চলিক প্রেসক্লাব-রিপোর্টার্স ক্লাব মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিবৃতির মাধ্যমে এ নৃশংসতার তীব্র নিন্দা জানায় এবং দোষীদের শাস্তির দাবিতে সোচ্চার থেকেছে। এ হামলার পর সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মামলা হলেও পুলিশ এখনও হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।
সাংবাদিক নেতারা উদ্বেগ প্রকাশ করে আরও বলেন, সাতক্ষীরার উপজেলা পর্যায়ের অধিকাংশ সাংবাদিক সংগঠন নিয়ন্ত্রণ করছে স্ব-স্ব এলাকার প্রভাবশালী এমপি বা উপজেলা চেয়ারম্যান। ফলে সাংবাদিক সংগঠনগুলো কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণে থাকছে না। ওই এলাকার স্থানীয় প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃত্ব কারা দেবেন তাও নির্ভর করে ওইসব প্রভাবশালী নেতাদের ওপর। এ পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে হলে প্রয়োজন একটি শক্তিশালী সাংবাদিক সংগঠন। যে সংগঠন সাতক্ষীরার সর্বস্তরের সাংবাদিকদেরকে সুরক্ষা দেবে এবং জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে নিয়ে শক্তিশালী একটি ইউনিটি গঠন করবে।
সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা শহরের একটি অভিজাত চাইনিজ রেস্টুরেন্টের সম্মেলন কক্ষে বহুল প্রচারিত দৈনিক দৃষ্টিপাতের সম্পাদক জি এম নূর ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় সাংবাদিক নেতারা এসব কথা বলেন।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরার প্রথিতযশা সাংবাদিক দৈনিক প্রথম আলোর স্টাফ রিপোর্টার ও দ্যা ডেইলি স্টারের প্রতিনিধি কল্যাণ ব্যানার্জি, আরটিভির রামকৃঞ্চ চক্রবর্তী, এটিএন বাংলা, দৈনিক সমকালের নিজস্ব প্রতিনিধি ও ভয়েস অব সাতক্ষীরা সম্পাদক এম কামরুজ্জামান, লোকসমাজের শেখ মাসুদ হোসেন, দৈনিক কল্যাণের কাজী শওকত হোসেন ময়না, দৈনিক জনতার কালিদাস কর্মকার, দৈনিক আজকের সাতক্ষীরার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও ডেইলি সাতক্ষীরার সম্পাদক হাফিজুর রহমান মাসুম, দৈনিক করতোয়া, দৈনিক যশোর এবং দৈনিক বাংলার খবরের সেলিম রেজা মুকুল, বাংলাভিশন টিভি ও বাংলাদেশ সময়ের আসাদুজ্জামান, আমাদের অর্থনীতির শেখ ফরিদ আহমেদ ময়না, আবাস ও প্রবর্তনের কাজী জামাল উদ্দিন মামুন, একাত্তর টিভির বরুন ব্যানার্জি, মানবজমিনের ইয়ারব হোসেন, এসএ টিভি, আলোকিত বাংলাদেশ, এম শাহিন গোলদার, মোহনা টিভির আব্দুল জলিল, দৈনিক ভোরের ডাকের মাহমুদ আলী সুজন প্রমুখ।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আরটিভি’র রামকৃঞ্চ চক্রবর্তীকে আহবায়ক এবং দৈনিক আজকের সাতক্ষীরার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক, দৈনিক ভোরের দর্পণের সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ও ডেইলি সাতক্ষীরার সম্পাদক হাফিজুর রহমান মাসুমকে সদস্য সচিব করে ২৯ সদস্য বিশিষ্ট সাতক্ষীরা রিপোর্টার্স ইউনিটি গঠন করা হয়।
কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেনÑ বাংলাদেশ বেতারের এ. কে এম শহীদ উল্যাহ, বাসস’র এড. অরুণ ব্যানার্জি, দৈনিক দৃষ্টিপাতের সম্পাদক জিএম নূর ইসলাম, প্রথম আলো ও ডেইলি স্টারের কল্যাণ ব্যানার্জি, দৈনিক আজকের সাতক্ষীরার সম্পাদক মহসিন হোসেন বাবলু, দৈনিক যুগের বার্তার সম্পাদক আবু নাসের মো: আবু সাঈদ, দৈনিক সাতনদীর সম্পাদক হাবিবুর রহমান, সময় টিভি ও এনএনবির মমতাজ আহমেদ বাপী, এটিএন বাংলা, দৈনিক সমকাল, রেটিও টুডে, ইউএনবির নিজস্ব প্রতিনিধি ও ভয়েস অব সাতক্ষীরা সম্পাদক এম কামরুজ্জামান, দৈনিক যুগের বার্তার নির্বাহী সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, দৈনিক দৃষ্টিপাতের নির্বাহী সম্পাদক আবু তালেব মোল্ল্যা, লোকসমাজের শেখ মাসুদ হোসেন, দৈনিক কল্যাণের কাজী শওকত হোসেন ময়না, গাজী টিভি ও দৈনিক পূর্বাঞ্চলের কামরুল হাসান, দৈনিক জনতার কালিদাস কর্মকার, দৈনিক করতোয়া, দৈনিক যশোর এবং দৈনিক বাংলার খবরের সেলিম রেজা মুকুল, বাংলাভিশন টিভি ও বাংলাদেশ সময়ের আসাদুজ্জামান, আমাদের অর্থনীতির শেখ ফরিদ আহমেদ ময়না, আবাস ও প্রবর্তনের কাজী জামাল উদ্দিন মামুন, একাত্তর টিভির বরুন ব্যানার্জি, মানবজমিনের ইয়ারব হোসেন, এসএ টিভি, আলোকিত বাংলাদেশ, রাইজিং বিডি ও দ্যা এশিয়ান এজের এম শাহিন গোলদার, মোহনা টিভি ও সমাজের কথার আব্দুল জলিল, দৈনিক দৃষ্টিপাতের বার্তা সম্পাদক জিএম আদম শফিউল্লাহ, দৈনিক ভোরের ডাকের মাহমুদ আলী সুজন ও দৈনিক যুগের বার্তার আমিনুর রশিদ।
গঠিত কমিটি আগামী ৯০ দিনের মধ্যে গঠনতন্ত্র প্রণয়ন করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত হয়। সাতক্ষীরা জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিক উক্ত সংগঠনের সাথে যুক্ত হয়ে কাজ করতে পারবেন বলেও সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

Related posts