বড়দলে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধ ইটভাটা ও বালু উত্তোলন

বি এম আলাউদ্দীন: আশাশুনির বড়দলে জবরদখলকৃত খাস জমিতে নিষেধাজ্ঞার সাইনবোর্ড টানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা রনজিত কুমার মন্ডলের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বড়দল ইউনিয়ন গ্রাম পুলিশ মোস্তাজুল হক, ফণীন্দ্রনাথ, সার্ভেয়ারসহ এলাকার সাধারণ জনগণ সম্মিলিত হয়ে এই নির্দেশনা সাইনবোর্ড মারা হয়।
উল্লেখ্য, আশাশুনি উপজেলার বড়দল মৌজার কপোতাক্ষ নদীর ১নং খাস খতিয়ানের ১১১৯ দাগের সরকারি জমিতে অবৈধ ইটভাটা নির্মাণ করে ভূগর্ভ থেকে বালু উত্তোলনের সময় পাইকগাছা উপজেলার ধামরাইল গ্রামের মৃত মজিদ মোড়লের পুত্র মুনতাফির রহমান মামুন ওরফে (সিরাজুল) ইসলাম এর অবৈধ ইটভাটায় উপস্থিত হয়ে ভূগর্ভ থেকে অবৈধভাবে ইটভাটার একাংশের মালিক মোঃ জাহার কে বালু উত্তোলন করতে দেখলে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) পাপিয়া আক্তার মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তাকে ৭দিনের জেল প্রদান করেন এবং বাকি আসামিদের বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ৮, এজাহার কৃত মামলায় আশাশুনি থানার পুলিশ সবাইকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।
ইতিপূর্বে সাতক্ষীরা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সরকার বাদি একটি মামলা হয় যার জি,আর ২৪৪/২০১৯ নং। মামলায় বিচারাধীন থাকা সত্বেও সরেজমিনে দেখা গেছে মুনতাসির রহমান মামুন (সিরাজুল) গং অবৈধ ইটভাটা এবং ভূগর্ভ থেকে বালু উত্তোলনের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

Related posts