দুর্নীতিবিরোধী অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে সাতক্ষীরাতেও অভিযান পরিচালনার দাবিতে গণমিছিল

নিজস্ব প্রতিনিধি : দেশের চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে এবং সাতক্ষীরাতেও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে অভিযান পরিচালনার দাবিতে বিশাল গণমিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ, সাতক্ষীরা’র আয়োজনে শুক্রবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা নিউ মার্কেটস্থ শহীদ আলাউদ্দীন চত্বর থেকে একটি গণমিছিল শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাতক্ষীরা পাকাপুলের উপর এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।
নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ, সাতক্ষীরার সভাপতি এড. ফাহিমুল হক কিসলুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক সোনা, বীরমুক্তিযোদ্ধা ইমাম বারী, নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ সাতক্ষীরার সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সুভাষ সরকার, সুধাংশু শেখর সরকার, প্রকৌশলী আবেদুর রহমান, এড. ওসমান গণি, শেখ ওবায়েদুস সুলতান বাবলু, স্বপন কুমার শীল, সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাশি, সায়েম ফেরদৌস মিতুল, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ পৌর শাখার সভাপতি শেখ নুরুল হক, ল স্টুডেন্টস ফোরাম সাতক্ষীরার সভাপতি এস এম বিপ্লব প্রমুখ। নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ, সাতক্ষীরার সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান মাসুমের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ, সাতক্ষীরার যুগ্ম সম্পাদক রওনক বাসার, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদীআলী সুজয়, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমির হোসেন খান চৌধুরী, আইন সম্পাদক এড. ইকবাল লোদী।
উক্ত গণমিছিল ও সমাবেশে বক্তারা বলেন, যদি বাংলাদেশে দুর্নীতি না হতো তাহলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নতির চুড়ায় পৌছে যেতো। দুর্নীতিবাজদের কারণে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল উন্নয়ন ম্লান হয়ে যাচ্ছে। সে কারণে জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রথমেই নিজের দলের ভেতরের দুর্র্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে শুদ্ধ অভিযান পরিচালনা শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে অনেকেই গ্রেফতার হয়েছেন। তিনি বলেন, দুর্নীতিবাজ যে দলেরই হোক না কেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই অভিযান সারা দেশে ছড়িয়ে দেওয়ার সাথে সাথে সাতক্ষীরায়ও অবিলম্বে পরিচালনার দাবি জানান তারা।
তারা বলেন, সাতক্ষীরার বিভিন্ন সরকারি অফিসের দুর্নীতি হচ্ছে। সেখানে মানুষ প্রতিদিন হয়রানি হচ্ছে। দালালদের মাধ্যমে টাকা না দিলে কোন কাজ হয় না। বিশেষ করে পাসপোর্ট অফিস, ভূমি অফিস, রেজিস্ট্রি অফিস, সেটেলমেন্ট অফিস উল্লেখযোগ্য। বক্তারা অবিলম্বে ওই সব অফিসে অভিযান পরিচালনা এবং ক্লিন সাতক্ষীরা গ্রীন সাতক্ষীরা গড়তে যারা বাধাগ্রস্থ করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

Related posts