দেবহাটায় লবনকান্ডে আটক ৫ জনের কারাদণ্ড

দেবহাটা ব্যুরো : দেবহাটায় লবন কান্ডে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৫ জনকে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া আটককৃত ৮শত কেজি লবন দুঃস্থদের মধ্যে বিতরন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকার মতো দেবহাটা উপজেলাব্যাপী একটি ভূয়া প্রচারনা চালিয়ে কতিপয় ব্যক্তি লবনের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে গুজব ছড়িয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি ও লবনের দাম বেশী করে বিক্রয় শুরু করে। এখবর জানতে পেরে দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা ফোর্স নিয়ে তাৎক্ষনিকভাবে উপজেলাব্যাপী অভিযান শুরু করেন। দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীন ও থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা ও ওসি (তদন্ত) উজ্জ্বল কুমার মৈত্র বিভিন্ন এলাকা থেকে লবন বেশী দামে ক্রয় বিক্রয় করার অপরাধে ৫ জনকে আটক করেন এবং ৮ শত কেজি লবন জব্দ করেন। আটককৃত হলো উপজেলার নাংলা গ্রামের আহাদ আলী গাজীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (৪০), একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে ইব্রাহীম গাজী (২৭), উপজেলার বহেরা গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে আক্তারুজ্জামান (২৫), সুশীলগাতী গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে আব্দুল হান্নান মোল্যা (৫০) ও সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভাড়–খালী মাহমুদপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হাকিমের ছেলে আমির হোসেন (২৭)। আটককৃতদেরকে বুধবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরীন ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ভোক্তা াধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৪ ধারার বিধান মোতাবেক প্রত্যেককে ৩ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। এছাড়া আটককৃত ৮শত কেজি লবন দুঃস্থদের মধ্যে বিতরন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, যেসকল অসাধু ব্যবসায়ী এই ধরনের সিন্ডিকেট করে অবৈধভাবে মানুষের সাথে প্রতারনা করবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Related posts