ভয়ঙ্কর চিকিৎসক; প্রেমিকাকে সঙ্গে নিয়ে শতাধিক নারীকে ধর্ষণ


অনলাইন ডেস্ক: ভয়ঙ্কর এক চিকিৎসক যিনি মাদক ও অবচেতন করা ওষুধের মাধ্যমে নারীদেরকে ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ করতেন। তবে তিনি একা নন, তাকে এই কাজে সহযোগিতা করতো তারই প্রেমিকা! শুনতে অদ্ভুত লাগলেও যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় নারীদেরকে ফাঁদে ফেলে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে গ্রান্ট উইলিয়াম রোবিশিয়াচ নামে এক চিকিৎসক ও তার প্রেমিকার বিরুদ্ধে। খবর সিএনএন’র।
ক্যালিফোর্নিয়া কর্তৃপক্ষ বলছে ৩৮ বছর বয়সী রোবিশিয়াচ ও তার প্রেমিকা ৩১ বছর বয়সী শেরিছা লরা রিলে তাদের সুদর্শন চেহারা ও মাদকের মাধ্যমে আকৃষ্ট করে দুই নারীকে ধর্ষণ করেছেন। রোবিশিয়াচের মোবাইলে পাওয়া ভিডিওগুলো পর্যবেক্ষণ করে অন্তত একশ’র বেশি নারী তাদের নির্যাতনের শিকার হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ ধারণা করছে।
এ সময় বিভিন্ন বিকৃত শারীরিক নির্যাতনও করেছেন ওই নারীদের ওপর। আর এ নির্যাতনের ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করা হয়েছে। তবে বর্তমানে অভিযুক্তরা জামিনে রয়েছেন। আগামী ২৫ অক্টোবর এ ঘটনায় রায় শোনাবে আদালত।
এদিকে গত বুধবার এ ঘটনার সর্বশেষ তথ্য দেন ক্যালিফোর্নিয়ার ওরাঞ্জ বিভাগের অ্যাটোর্নি চিফ সুশান কাং স্ক্রুডার। তিনি বলেন, নতুন করে ৬ জন ভু্ক্তভোগী তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। এছাড়া ৩০ জন ভুক্তভোগী এ মামলার তদন্তকারীদের কাছে ফোন করেছেন।
তবে আসামিপক্ষের অ্যাটর্নিরা দাবি করেছেন, অভিযুক্তরা অপরাধের কিছু করেননি।

Related posts