ধর্ষণ প্রতিরোধে আইন আরও কঠিন হওয়া প্রয়োজন- প্রধানমন্ত্রী

দেশের খবর: শিশু ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন নিয়ে বিরোধী দলীয় সংসদ উপনেতা রওশন এরশাদের বক্তব্যের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমাদের কিছু সামাজিক অপরাধ প্রবণতা বেড়ে গেছে। শিশুদের ওপর পাশবিক অত্যাচার বা কথায় কথায় মানুষ খুন করা। ছোট শিশুদের খুন করা। একটা ঘটনা যখন হয় পত্রিকায় এটা নিউজ হয় তখন যেন এগুলো আরও বেশি বৃদ্ধি পায়।

তিনি বলেন, ধর্ষণ প্রতিরোধ চলমান আইন আরও কঠোর করার প্রয়োজন এবং আরও কঠোরভাবে তাদের শাস্তি দেওয়া দরকার। কারণ এই ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ কখনো মেনে নেয়া যায় না।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেলে একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ ব্যাপারে গণমাধ্যমের সঙ্গে জড়িত সকলের উদ্দেশে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের মিডিয়ায় যারা আছে তারা যেন এই ধর্ষকদের চেহারা বারবার দেখান। কারণ তাদের যেন একটা লজ্জা হয়।

একইসঙ্গে পুরুষ সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা আরও বলেন, সেই সঙ্গে বলব, আমরা শুধু মেয়েরাই প্রতিবাদ করব কেন? এখানে পুরুষ সম্প্রদায় তাদের জন্য লজ্জার বিষয় যে, এই পুরুষরাই অপরাধটা করে যাচ্ছে। সে জন্য আমাদের পুরুষ সম্প্রদায়কেও আরও সোচ্চার হতে বলে মনে করি।

আর এই ব্যাপারে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধি নিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপটা একটু বেড়ে গেছে। তবে ডেঙ্গু মশা আবার একটু অ্যারোস্ট্রোকেট মশা হয়ে গেছে। বস্তি এলাকায় থাকে না। ময়লা পানিতে থাকে না। তারা ভদ্র জায়গা খোঁজে। এখানেই সমস্যা, ওষুধ দিলেও যায় না।

তাই দেশবাসীকে নিজের ঘরবাড়ি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রেখে ডেঙ্গু মশা যাতে বংশ বৃদ্ধি করতে না পারে না সেদিকে দৃষ্টি দেওয়ার আহ্বান জানান। এ জন্য বাসাবাড়ির কোথায় পানি জমে আছে কি না, ফুলের টব, এয়ারকন্ডিশনসহ বিভিন্ন জিনিস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে দৃষ্টি দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

Related posts