যৌন হয়রানি কাণ্ডে এক বছর পর সাহিত্যে নোবেল ঘোষণা

সাহিত্য ও সংস্কৃতি ডেস্ক: যৌন হয়রানির জেরে এক বছর বন্ধ থাকার পর এবছর ফের সাহিত্যে নোবেল পুরষ্কার ঘোষণা করেছে সুইডিশ একাডেমি। এবছর একসাথে দুইজনকে পুরষ্কৃত করতে যাচ্ছে নোবেল কমিটি। বৃহস্পতিবার বিকালে দুজন বিজয়ীর নাম ঘোষিত হয়েছে। খবর বিবিসির।

বিজেতাদের একজন পোলিশ সাহিত্যিক ওলগা তোকার্কজুক। তিনি ২০১৮ সালে সাহিত্যে নিজের অবদান রাখার জন্য পুরষ্কৃত হতে যাচ্ছেন। অন্যজন অস্ট্রিয়ান লেখক পিটার হান্ডকে। তিনি এবছরের হিসেবে সম্মানিত হচ্ছেন কমিটির পক্ষ থেকে।

গত বছর নোবেল কমিটির সদস্য ক্যাটারিনা ফ্রস্টেনসনের স্বামী জিন-ক্লড আর্নল্টের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠলে সাহিত্যে নোবেল ঘোষণা এক বছরের জন্য বন্ধ করা হয়। কমিটি তখন বলেছিল, ‘২০১৯ সালে দুই বছরের নোবেল একসাথে দেয়া হবে।’ ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে ২০১৮ সালের অক্টোবরে আর্নল্টকে ২ বছরের কারাদণ্ড প্রদান করে স্টকহোম আদালত। এ ঘটনায় পরে ক্যাটারিনা ফ্রস্টেনসন পদত্যাগ করেন।

এছাড়া সুইডিশ একাডেমির বিরুদ্ধে সে বছর অভিযোগ উঠেছিল, ‘তারা বিজয়ীদের নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার আগেই তা লিক হয়ে যায়। ফলে নোবেল পুরষ্কার নিয়ে মানুষের আগ্রহ কমে যাচ্ছে।’

আগের বছরের নোবেল এ বছর পেয়ে বেশ আপ্লুত তোকার্কজুক। তিনি গত বছর ম্যান বুকার পুরষ্কারেও ভূষিত হয়েছিলেন। এছাড়া, ৭৬ বছর বয়সী পিটার হান্ডকে মানব অভিজ্ঞতা এবং শাসনতন্ত্রকে অকপটভাবে সাহিত্যে তুলে আনার জন্য ২০১৯ সালের নোবেল জিতেছেন। একাধারে কবি, ঔপন্যাসিক ও নাট্যকার হান্ডকে ১৯৯০ সালের যুগোস্লাভ যুদ্ধের বেশ বিতর্কিত ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছিলেন। এমনকি ২০০৬ সালে সার্বিয়ান নেতা স্লোবোদান মিলোসেবিচের পক্ষে বক্তব্য দেয়ার কারণেও তিনি বিতর্কিত হয়েছিলেন।

৫৭ বছর বয়সী ওলগা তোকার্কজুককে কথকের মাধ্যমে জীবনের একটি গুরুতত্ত্বে আলোকপাত করার জন্য ২০১৮ সালের নোবেলে ভূষিত করে সুইডিশ একাডেমি। তার উপন্যাসের মূল বিষয়বস্তু ছিলো, বিশ্বকোষকে জানার অদম্য ইচ্ছাই মানুষকে সকল সীমানা অতিক্রম করতে অনুপ্রাণিত করে।’

নোবেল জেতার কারণে উভয় সাহিত্যিকই ৯০ লাখ সুইডিশ ক্রোনা(১ ক্রোনা= ৮.৬০ টাকা) করে প্রাইজমানি পাবেন।

Related posts