ওসির থানায় এক বছর পূর্তিতে রাজসিক কাণ্ড!

ভিন্ন স্বাদের সংবাদ: শেরওয়ানি পড়ে বরের বেশে এলেন ওসি এসএম আল মামুন। এরপর কাটলেন বিশালাকারের কেক। গভীর রাত পর্যন্ত চলল মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাথে ছিল খাওয়া-দাওয়ার বিশাল আয়োজন। এ যেন রজসিক কাণ্ড!

না, এ কোনো বিয়ের আয়োজন নয়। এ আয়োজন সিলেটের ওসমানীনগর থানায় ওসি আল মামুনের এক বছর পূর্তির! গত বৃহস্পতিবার রাতে থানার মধ্যে এমন আয়োজন নিয়ে চলছে সমালোচনার ঝড়। সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি বলছেন, বিষয়টি তিনি দেখবেন।
জানা গেছে, সিলেটের ওসমানীনগর থানায় এক বছর পূর্বে ওসি হিসেবে যোগ দেন এসএম আল মামুন। এ থানায় তার যোগদানের বছরপূর্তি উপলক্ষে গত বৃহস্পতিবার রাতে থানা পুলিশের উদ্যোগে রাজকীয় আয়োজন করা হয়। ওসি আল মামুন শেরওয়ানি পরিধান করে রীতিমতো বরের বেশে অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য আনা হয় শিল্পী, রাখা হয় আধুনিক সাউন্ড সিস্টেম। বছরপূর্তি উপলক্ষে বিশালাকারের একটি কেক কাটেন ওসি। এছাড়া মাছ, মাংসসহ বিভিন্ন পদের খাবার দিয়ে আয়োজন করা হয় নৈশভোজের। গভীর রাত অবধি চলা এই আয়োজন নিয়ে শুক্রবার সরগরম ছিল সিলেট। বিভিন্ন স্তরের মানুষ এ নিয়ে সমালোচনা করছেন।

এ ব্যাপারে ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলু বলেন, ‘ওসি সাহেবের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক দাওয়াত পেয়ে সেখানে গিয়েছিলাম। দাওয়াত খেয়ে চলে আসি। ওসির বর্ষপূর্তিতে এ ধরনের অনুষ্ঠান আগে কখনো দেখিনি।’

ওসমানীনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আনা মিয়া বলেন, ‘দাওয়াত পেয়ে অনুষ্ঠানে গিয়ে দেখি ওসির বর্ষপূর্তি উপলক্ষে বর্ণাঢ্য আয়োজন করা হয়েছে। আমি দাওয়াত খেয়ে চলে আসি।’

এ বিষয়ে ওসমানীনগর থানার ওসি আল মামুন বলেন, ‘থানায় যোগদানের এক বছর পূর্তিতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সকলের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানটি সুন্দর হয়েছে।’

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তার বলেন, ‘কর্মস্থলে যোগদানের বর্ষপূর্তিতে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজনের কোনো নিয়ম নেই। এ বিষয়ে আমি জ্ঞাত নই। আমাকে কেউ কিছু বলেনি।’

জানতে চাইলে সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি কামরুল হাসান বলেন, ‘সিলেট রেঞ্জে যোগদানের আমারও তো প্রায় তিন বছর হয়ে গেল। কই, কখনো তো এ ধরনের অনুষ্ঠান করতে দেইনি! ওসি যোগদানের বছর পূর্তিতে ওসমানীনগর থানায় এ ধরনের আয়োজনের বিষয়ে আমি কিছু জানি না। বিষয়টি দেখবো।’

Related posts