সাতক্ষীরায় ওকালতনামা জালিয়াতির অভিযোগে গ্রেপ্তার মহসিনসহ দুই জনের রিমান্ড মঞ্জুর

আসাদুজ্জামান ঃ সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবি সমিতির ওকালতনামা জালিয়াতির অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত অফিসসহকারী মহসিনসহ দুই জনকে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। বুধবার দুপুরে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সদর থানা এস.আই হাফিজুর রহমান সাতক্ষীরার আমলি আদালত-১-এ ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন জানালে আদালতের বিচারক রেজোয়ানুজ্জামান তাদেরকে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে গত ৭ নভেম্বর আইনজীবি সমিতির নেতৃবৃন্দ তাদের দুই জনকে হাতে নাতে আটক করে সদর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় ওই দিনই আইনজীবি সমিতির সহ-সম্পাদক আনিসুজ্জামান বাদী হয়ে ৪ জনের নামসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন।
এ মামলার আসামীরা হলেন, সদর উপজেলার আলীপুর গ্রামের মৃত ফয়জুল ইসলামের ছেলে গ্রেপ্তারকৃত রাজিব বিল্লাহ, একই উপজেলার বাঁশঘাটা গ্রামের আমিরুল হকের ছেলেগ্রেপ্তারকৃত আইনজীবি সমিতির অফিস সহকারী মহসিন হোসেন, বকচরা গ্রামের হাবিবুর রহমান সরদারের ছেলে পলাতক জাকির হোসেন ফিরোজ ও যুগরাজপুর গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে পলাতক মঈনুর রহমান মঈন।
এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই হাফিজুর রহমান জানান, মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে উপরোক্ত চার আসামীসহ অজ্ঞাত কয়েকজন জালিয়াতি চক্র দীর্ঘদিন যাবত ওকালতনামা, ডেমি, কোর্টফি, বেলবন্ডসহ বিভিন্ন কাগজপত্র জাল তৈরী করে তা বিক্রি করে আসছিল। এক পর্যায়ে গত ৭ নভেম্বর গ্রেপ্তারকৃত রাজিব ও মঈনকে আইনজীবি সমিতির নেতৃবৃন্দ হাতেনাতে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় ওই দিনই আইনজীবি সমিতির সহ-সম্পাদক আনিসুজ্জামান বাদী হয়ে ৪ জনের নামসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন। তিনি জানান, গ্রেপ্তারকৃত দুজন পুলিশের কাছে ওকালতনামা ও সিল জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত বলে স্বীকারও করেছেন। তদন্ত কর্মকর্তা বুধবার সাতক্ষীরার আমলি আদালত-১-এ তাদেরকে ৭ দিনের রিমান্ড নেয়ার জন্য আবেদন জানালে আদালতের বিচারক রেজোয়ানুজ্জামান তাদের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তবে, এ মামলার অপর দুই আসামী ফিরোজ ও মঈন পলাতক রয়েছে বলে তিনি আরো জানান।##

Related posts