ষ্টেনো ওহাব কর্তৃক মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি ঃ সাতক্ষীরা পুলিশ প্রশাসনের ষ্টেনো আব্দুল ওহাব কর্তৃক প্রভাব খাটিয়ে একের পর এক মিথ্যা মামলায় হয়রানি ও সম্পত্তি আত্মাসাতের পায়তারা চালানোর অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন, আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের বলাডাঙ্গা গ্রামের ইউনুছ আলী মোড়লের ছেলে আছাফুর জামান।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, ষ্টেনো আব্দুল ওহাবের গ্রামে বাড়ি আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের বলাডাঙ্গা গ্রামে। তার সাথে আমার পিতার জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। উক্ত সম্পত্তি অবৈধভাবে আত্মসাতের উদ্দেশ্যে গ্রামে থাকা তার ভাই আব্দুর রশিদ মোড়ল, ফজলুর রহমান মোড়ল, ভাইপো সাইফুল ইসলাম ময়না, তার চাচাতো ভাই শাহাজান মোড়ল, শাহাজানের পুত্র আল মামুন মিলন গংদের ব্যবহার করে আমাদেরকে সর্বশান্ত করার পায়তারায় লিপ্ত রয়েছেন। আর তাদের অসৎ উদ্দেশ্যে সফল করার জন্য আব্দুল ওহাব স্টোনো হওয়ার সুবাদে থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে একের পর এক মিথ্যা মামলায় জর্জরিত করে আমাদেরকে হয়রানি করে যাচ্ছেন। শুধু মামলা দিয়েই ক্ষ্যান্ত হননি। ওই কুচক্রী পর সম্পদ লোভী আব্দুল ওহাব পুলিশ প্রশাসনকে ব্যবহার করে আমার মাতাকে মিথ্যা মামলায় জেলও খাটিয়েছেন। আব্দুল ওহাব আশাশুনি থানায় যে মামলা দায়ের করিয়েছেন সেখানে আমাকে ১নং আসামী এবং তিন বোনসহ পিতা-মাতা সবাইকে আসামী করা হয়েছে। অথচ আমি সাতক্ষীরা শহরে সরকারি কলেজে লেখাপড়া করি। এ ঘটনার সময় আমি সাতক্ষীরা শহরের একটি ছাত্রাবাসে ছিলাম। এছাড়া আমার বোন রোকেয়া খাতুন চাকুরির সুবাধে কক্সবাজারে থাকেন, অপর বোন সাহিদা খাতুন কালিগঞ্জে সুশীলন অফিসে চাকুরি করেন এবং ছোট বোন বিউটি সাতক্ষীরা শহরে থেকে সরকারি কলেজে লেখাপড়া করে। মামলায় বর্ণিত ঘটনার সময় বা স্থানে এধরনের কোন ঘটনা না ঘটলেও তিনি ষ্টেনো হওয়ার সুবাদে গল্প সাজিয়ে উক্ত মিথ্যা মামলা দায়ের করিয়েছেন। উক্ত মামলার বাদী করিয়েছেন তার চাচাতো ভাই শাহাজানের তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী মঞ্জুয়ারা খাতুনকে। আব্দুল ওহাব নিজে প্রকাশ্যে না আসলেও তারই নির্দেশে শাহাজানসহ অন্য ভাই ও ভাইপোরা এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছেন। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে গেলে মিথ্যা মামলায় হয়রানি, খুন জখমের হুমকি এবং পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটিয়ে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করেন। অথচ এই শাহাজাহান এলাকার চিহ্নিত প্রতারক। মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে পরিশোধ না করে প্রতারণা করেন। এছাড়া ভাইপো সাইফুল ইসলাম ময়না এলাকায় একটি সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলেছেন। ময়নার নেতৃত্বে অত্র এলাকায় বহু অপকর্মে চালিয়ে যাচ্ছেন তার বাহিনী। তিনি আরো বলেন, আমার বোনদের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে তাদের সামাজিকভাবে চরম সম্মান হানি করেছেন। এছাড়া স্বামীর সংসারে থাকা দুই বোনের স্বামীদের কাছে তাদের বিরুদ্ধে অশ্লীল কথাবার্তা বলে তাদের সংসারে অশান্তি সৃষ্টি করেছেন। বাড়িতে আমার বৃদ্ধ পিতা-মাতাকে তারা প্রতিনিয়ত খুন জখমের হুমকি প্রদর্শন করে যাচ্ছেন। বর্তমানে আমার পিতা-মাতা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন। এমতাবস্থায় তিনি দুর্নীতিবাজ, পরসম্পদলোভী ও মামলাবাজ আব্দুল ওহাবের হাত থেকে তার পরিবারের সদস্যদের সামাজিক নিরাপত্তা এবং জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। তবে, এ ঘটনায় ষ্টেনো আব্দুল ওহাব জড়িত নয় বলে তিনি দাবী করেন।

Related posts