সর্বশেষ সংবাদ-
কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গোলাগুলিতে নিহত ৭অবৈধ মোবাইল ফোন বন্ধ হচ্ছে নাইকবাল সন্দেহে কক্সবাজারে যুবক গ্রেপ্তারআছিয়া বেগম স্মৃতি পাঠাগারের কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠনসাংবাদিক শামীম পারভেজ এর সুস্থ্যতা কামনায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের বিবৃতিছেলের হাতে মার খেয়ে আবারো হাসপাতালে সাতক্ষীরার মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক বজলুরসাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সাঃ) পালিতউদ্যোক্তাদের ব্যবসা বৃদ্ধির জন্য ফলোআপ মিটিংপুজামন্ডপ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ভাংচুরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় প্রথম আলোর বন্ধুসভার মানববন্ধনসাতক্ষীরায় যাত্রীবাহী বাস খাদে: নিহত-১: আহত-১০

পুজামন্ডপ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ভাংচুরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় প্রথম আলোর বন্ধুসভার মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিনিধি:
কুমিল্লা,চট্রগ্রাম,চাঁদপুর,নোয়াখালী,সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় পুজা মন্দির ও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা,ভাংচুর,লুটপাটের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার প্রথম আলো বন্ধুসভার আয়োজনে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়

।সকাল ১০টা থেকে ১২ ঘন্টা দুই ঘন্টার এ কর্মসূচির সঙ্গে একত্বতা প্রকাশ করে মনববন্ধনে অংশ নেয় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা স্বদেশ,প্রেরণা নারী উন্নয়ন সংগঠন,আইন ও সালিশ কেন্দ্র,এইচআরডিএফ-সাতক্ষীরাসহ মুক্তিযোদ্ধা,শিক্ষক,সাংস্কৃতিক কর্মী,সাহিত্যিক,কবি,আইনজীবী,সাংবাদিক,ছাত্র-ছাত্রী ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

প্রথম আলো বন্ধুসভার সাতক্ষীরার সভাপতি মরিয়াম কেয়ার সভাপতিত্বে ও সহসভাপতি রবিউল ইসলামের সঞ্চলনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন,বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ সুভাষ সরকার,প্রেসক্লাবের সভাপতি মমতাজ আহমেদ,কবি ও সাহিত্যিক স ম তুহিন,সাতক্ষীরা নাগরিক আন্দোলন মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান,সাংবাদিক এম,কামরুজ্জামান,সেলিম রেজা, মানবাধিকার কর্মী মাধব দত্ত,উদীচি শিল্পগোষ্ঠীর সভাপতি শেখ সিদ্দিকুর রহমান,কেন্দ্রীয় ছাত্র লীগের কার্যকরী পরিষদের সদস্য আসিফ শাহবাজ খান,সাতক্ষীরা রাসেল স্মৃতি সংসদের সভাপতি রাশেদুজ্জামান,হেড সংস্থার নির্বাহী পরিচালক লুইস রানা গাইন,প্রথম আলো বন্ধু সভা সাতক্ষীরার সাধারণ সম্পাদক গোলাম হোসেন,প্রচার সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান,পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক মৌতাষি চ্যাটার্জী ও প্রথম আলোর সাতক্ষীরার নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জি প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন,কুমিল্লা ও পীরগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামন্দির,প্রতিমা,হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের বাড়িঘর ভাংচুর ও হামলা করা হয়েছে তা কোন স্বাধীন দেশে হতে পারে না। মুক্তিযোদ্ধার চেতনা বিশ^াসী বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে

এ ধরণের ঘৃর্ণ ও জঘন্য কর্মকান্ড কোনো বিবেকমান মানুষ মেনে নেবে।অস্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল মানুষের জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে উল্লেখ করে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা না গেলে এমন ঘটনা ঘটতেই থাকবে।দেশে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় ও সংখ্যালঘুদের আস্তা প্রতিষ্ঠিত করতে হলে অবিলম্বে এসব ঘটনায় জড়িতদের শানক্ত ও গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির কোনো বিকল্প নেই।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
সাতক্ষীরায় যাত্রীবাহী বাস খাদে: নিহত-১: আহত-১০

আসাদুজ্জামান ঃ সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের শাঁকদাহ ব্রীজ সংলগ্ন ভৈরবনগর এলাকায় যাত্রীবাহী বাসের চাকা বিস্ফোরণ হয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে একজন নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ দূর্ঘটনাটি ঘটে। এ সময় কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে।

নিহতের নাম রানা সরদার (৩০)। তিনি শহরের পুরাতন সাতক্ষীরা এলাকার আব্দুস সালাম সরদারের ছেলে ও দূর্ঘটনা কবলিত বাসের হেলপার।

এদিকে, আহতরা হলেন, সাতক্ষীরার তলুইগাছা গ্রামের মতলেব সরদারের ছেলে সাজ্জাত সরদার (৫০), শ্যামনগর উপজেলার আব্দুল বারীর ছেলে ফরহাদুজ্জামান (২৪), খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার শান্তিনগর গ্রামের বদরউদ্দিনের ছেলে নওশের আলী (৭৫), চুকনগর গ্রামের সিরাজ সরদারের ছেলে আল আমিন (২৮) ও রনিজৎ কর্মকার (৪০)সহ ১০ জন।

স্থানীয়রা জানান, সাতক্ষীরা থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহি বাস খুলনার দিকে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে শাঁকদাহ ব্রিজের সংলগ্ন ভৈরবনগর এলাকায় পৌছালে হঠাৎ একটি বিকট শব্দে বাসের সামনের চাকা ব্লাস্ট হয়ে যায়। এতে মুহূর্তেই বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এ সময় খাদের পানির মধ্যে বাস চাপা পড়ে হেলপার রানা নিহত হন এবং আহত হন বাসের কমপক্ষে ১০ যাত্রী।

সাতক্ষীরা ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক তারেক হাসান ভুইয়া জানান, যাত্রীবোঝাই বাসের সামনের চাকা ব্লাস্ট হয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি খাদে পড়ে যায়। এতে হেলপার রানা ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছে। এছাড়া বাসে থাকা ১০-১২ জন যাত্রী আহত হয়েছেন। আহতদের সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত বাস হেলপারের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, বর্তমানে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।##

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
কুমিল্লার মণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখেন ইকবাল হোসেন: পুলিশ

ইকবাল হোসেন নামে এক ব্যক্তি কুমিল্লার পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন রেখেছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাকে শনাক্ত করা হয়।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিস্তারিত আসছে…

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
সাতক্ষীরায় পর্ণগ্রাফির ভিডিওসহ  গ্রেপ্তার- ১

নিজস্ব প্রতিনিধি : সাতক্ষীরায় র‌্যাবের অভিযানে পর্ণ ভিডিও সরবরাহ করার অভিযোগে এক মোবাইল সার্ভিসিং এর ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। আটক ব্যক্তির নাম মোঃ মহসিন আলী (৩৬)। সে সাতক্ষীরা সদরের কুলিয়াডাঙ্গা গ্রামের মৃত. মোসলেম আলী গাইনের ছেলে।

র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরা কোম্পানী জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানান যায়, কিছু কম্পিউটার ব্যবসায়ী অবৈধভাবে ইন্টারনেট, কম্পিউটার ডিভাইস ব্যবহার করে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজনের নিকট টাকার বিনিময়ে পর্ণ ভিডিও সরবরাহ করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা সাতক্ষীরা সদর থানাধীন ২ নং কুশখালী ইউনিয়নের ভাদরা বাজারস্থ ধৃত আসামী মোঃ মহসিন আলী এর মোবাইল সার্ভিসিং এর দোকানের সামনে অভিযান চালায়।

এ সময় তার হেফাজাত থেকে সিপিউ ২ টি, মনিটর ১ টি, মাউস ১ টি, কি-বোর্ড ১ টি, পাওয়ার ক্যাবল ২ টি, ভিজিও ক্যাবল ১ টি, মোবাইল ১ টি এবং সিম কার্ড ২ টি আটক করা হয়। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানায় মামলা হয়েছে। মামলা নং ৫৯, তারিখ ২০/১০/২০২১ ইং ধারাঃ পর্ণগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২ এর ৮(৫) (ক)।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
ব্যারিস্টার হওয়া হলো না সাতক্ষীরার  স্বর্ণার

ডেস্ক রিপোর্ট :
ব্যারিস্টার হওয়া হলো না স্বর্ণার। রোববারের পরীক্ষায়ও বসা হলো না তার। এরই মধ্যে সকালেই বাড়ির কাজের মেয়ে তার ঘর ঝাড়ু দিতে এসেই দেখতে পান স্বর্ণার নিথর দেহ ঝুলছে ছাদের সিলিংয়ের হুকের সঙ্গে।

মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটে সাতক্ষীরা শহরের খুলনা মোড়ের পাশে মধুমোল্লারডাঙ্গীতে বাবা ভূমি কর্মকর্তা আব্দুস সেলিমের বাড়িতে।

মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া মেহজাবিন স্বর্ণা ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। বৃহস্পতিবার একটি পরীক্ষার জন্য বাবার সঙ্গে তার ঢাকায় যাওয়ার কথা ছিল। তার আগেই সব শেষ হয়ে গেল। রোববারের সেই পরীক্ষায় বসা হলো না তার।

স্বর্ণার বাবা নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার ভূমি কর্মকর্তা আব্দুস সেলিম জানান, আমি ছিলাম কর্মস্থলে। মঙ্গলবার রাতে পড়া শেষ করে স্বর্ণা তার মায়ের সঙ্গে ঘুমিয়ে ছিল। ভোর ৫টা কিংবা সাড়ে ৫টায় মায়ের কোল থেকে উঠে নিজের ঘরে যায় সে। আজ ছুটির দিন হওয়ায় সবাই বেশিক্ষণ ঘুমন্ত ছিলেন। সকাল ১০টার দিকে কাজের মেয়ে ঝাড়ু দিতে স্বর্ণার ঘরে ঢুকতেই দেখতে পায় তার ঝুলন্ত লাশ। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। নিকটেই সদর হাসপাতালে তাকে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তার স্বর্ণাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 

সাতক্ষীরা সদর থানার এসআই মো. শরিফুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে আমরা হাসপাতাল থেকে লাশ গ্রহণ করি। ময়নাতদন্ত শেষে তার লাশ বাবা মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি বলেন, তার গলায় ফাঁসের দাগ ছিল। প্রাথমিকভাবে আমি এটাকে আত্মহত্যা বলে মনে করছি। পরিবারের দাবিও তাই। এ নিয়ে আরও তদন্ত হবে। এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি ঘর ভাংচুর ও লুটপাটের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় ওয়ার্কার্স পাটির বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি:  কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের পুজা ম-প, মন্দির, বাড়ি ঘর ভাংচুর, হত্যা ও লুটপাটের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সাতক্ষীরা জেলা ওয়ার্কার্স পার্টি।

বুধবার বিকাল ৪টায় সাতক্ষীরা শহরের নিউমার্কেটস্থ শহীদ আলাউদ্দীন চত্বরে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি উপাধ্যক্ষ মহিবুল্লাহ মোড়ল।

জেলার সাধারণ সম্পাদক এড.ফাহিমুল হক কিসলুর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, তালা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, কলারোয়া ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ মাস্টার, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য স্বপন কুমার শীল, জেলা ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি সাকিব মোড়ল। উপস্থিত ছিলেন, জেলার সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য কমরেড আবেদুর রহমান, কমরেড ময়নুল হাসান, কমরেড অজিত কুমার রাজবংশী, জেলা কমিটির সদস্য কমরেড আব্দুল জলিল মোড়ল, কমরেড নির্মল কুমার সরকার, হিরন্ময় মন্ডল, উপজেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ, ইউনিয়ন কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সাতক্ষীরা শহরের মিনি মাকের্ট চত্বর থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে সাতক্ষীরা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে নিউমার্কেটস্থ শহীদ আলাউদ্দিন চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ২০০১ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত কুমিল্লার নানুয়ার দীঘির পাড় থেকে কক্সবাজারের রামু পর্যন্ত সংখ্যালঘুদের উপর বার বার নির্যাতন অত্যাচার, হত্যাযজ্ঞ চালানো হয়েছে। এ পর্যন্ত একটি মামলারও বিচার সম্পন্ন হয়নি। অপরাধীরা জামিন নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায়। যে কারনে বার বার এধরনের সাম্প্রদায়িক হামলা ঘটে চলেছে।

কোন ধর্ম অন্য ধর্মের মানুষের উপর হামলা করতে বলেনি। একটি চক্র আমাদের বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার জন্য একের পর এক চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে শারদীয় দূর্গাপুজা চলাকালিন কুমিল্লার নানুয়ার দীঘির পাড় মন্দিরে পরিকল্পিতভাবে রেখে দেওয়া পবিত্র কোরআন শরীফকে নিয়ে কুমিল্লা, রংপুর, চট্টগ্রাম, চাঁদপুর, নোয়াখালি, সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী কর্তৃক প্রতিমা ভাঙচুসহ হিন্দুদের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাট শেষে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। বক্তারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবী এবং ক্ষতিগ্রস্থদের পূনর্বাসনসহ আর্থিক সহযোগিতা করা এবং দ্রুত সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইনের বাস্তবায়নের দাবি জানান।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
তিস্তা ব্যারেজের ৪৪ গেট খুলে দিয়েছে ভারত, বিপৎসীমার ওপরে পানি

অনলাইন ডেস্ক : ভারতে তিস্তা ব্যারেজের গজলডোবা অংশের সবগুলো গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। ফলে বাংলাদেশ অংশে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে এখন বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বুধবার বিবিসি বাংলা এক প্রতিবেদনে এতথ্য জানিয়েছে।

নীলফামারীর ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউ-দৌলা বলেন, তিস্তার পানি এখন ৭০ সেন্টিমিটারের বেশি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। একারণে তিস্তা ব্যারেজ সংলগ্ন এলাকায় ‘রেড এলার্ট’ জারি করা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের তিস্তা ব্যারেজে যে ফ্লাড বাইপাস আছে, মানে নদীতে পানির প্রবাহ বেড়ে বিপৎসীমা ছাড়ালে ওই বাইপাস খুলে যায়, সেটি ভেসে গেছে।

আসফাউ-দৌলা বলেন, মঙ্গলবার রাত ১০টার পর থেকে নদীতে পানি বাড়তে থাকে। বুধবার সকাল ৬টার দিকে প্রথম বিপৎসীমার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হতে শুরু করে।

তিনি বলেন, ভারতীয় অংশে গত কয়েকদিন প্রচুর বৃষ্টিপাত হওয়ার কারণে পানি বিপৎসীমার ওপরে উঠে যাওয়ায়, তারা তিস্তা ব্যারেজের গজলডোবার ৪৪টি গেট খুলে দিয়েছে। যে কারণে আমাদের এখানে হঠাৎ এমন পানি বৃদ্ধি ঘটেছে।

তিস্তা নদীর তীরবর্তী এলাকার মানুষদের নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক মো. আবু জাফর বলেছেন, বছরের এই সময়ে হঠাৎ করে এমন পানি বৃদ্ধি বা বন্যার আশংকা অস্বাভাবিক ঘটনা। লালমনিরহাটের তিনটি উপজেলার অনেকগুলো গ্রাম, বিশেষ করে তিস্তার চর এলাকাগুলো ইতিমধ্যেই প্লাবিত হয়েছে।

সাধারণত তিস্তার পানির প্রবাহ ৫২.৬ সেন্টিমিটার পর্যন্ত স্বাভাবিক বিবেচনা করা হয়। পানির প্রবাহ ওই সীমার ওপরে গেলে তাকে বিপৎসীমা বিবেচনা করা হয়।

পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, মঙ্গলবার রাতে তিস্তার পানি বেড়ে ডালিয়া পয়েন্টে ৫২ দশমিক ৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
আয়েনউদ্দীন মহিলা মাদ্রাসায় ঈদে মিলাদুন্নবী দিবসের আলোচনা সভা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যে পরিবেশে সাতক্ষীরা আয়েনউদ্দীন মহিলা আলিম মাদ্রাসার উদ্যোগে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সকাল ১১ টায় প্রতিষ্ঠানটির অফিস কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ মো: রুহুল আমিন।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ সাবেক ব্যাংকর আলহাজ্ব আব্দুর রহিম।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন কালু। মাও. সাখাওয়াতুল্লাহর পরিচালায় অনুষ্ঠানে মাওলানা নুরউদ্দীনসহ শিক্ষক-শিক্ষিকারা বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন, আজ থেকে এক হাজার ৪৫১ বছর আগের এই দিনে সৌদি আরবের মক্কা নগরে ৫৭০ খ্রিষ্টাব্দের এই দিনে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) জন্ম নেন।

৬৩২ খ্রিষ্টাব্দের একই দিনে তিনি ইহলোক ত্যাগ করেন।সারাবিশ্বের মুসলমানরা এই দিনকে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করেন।

মহান আল্লাহ আমাদের প্রিয়নবি হজরত মুহাম্মদকে (সা.) এ পৃথিবীতে পাঠিয়েছেন শান্তি, মুক্তি, প্রগতি ও সামগ্রিক কল্যাণের জন্য ‘রাহমাতুল্লিল আলামিন’ তথা সারা জাহানের রহমত হিসেবে।

নবি করিমকে (সা.) বিশ্ববাসীর রহমত হিসেবে আখ্যায়িত করে পবিত্র কোরআনে মহান আল্লাহ বলেছেন, ‘আমি আপনাকে সমগ্র বিশ্বজগতের জন্য রহমতরূপে পাঠিয়েছি’ (সূরা আল-আম্বিয়া, আয়াত: ১০৭)। মুহাম্মদ (সা.) এসেছিলেন তওহিদের মহান বাণী নিয়ে। সব ধরনের কুসংস্কার, অন্যায়, অবিচার, পাপাচার ও দাসত্বের শৃঙ্খল ভেঙে মানবসত্তার চিরমুক্তির বার্তা বহন করে এনেছিলেন তিনি।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest