সর্বশেষ সংবাদ-

শ্যামনগরে জলবায়ু নিরোধক পানীয় জলের সমাধান এবং স্বাস্থ্যবিধি প্রচার শীর্ষক শিখন বিনিময় কর্মশালা

শ্যামনগর ব্যুরো : শ্যামনগরে জলবায়ু নিরোধক পানীয় জলের সমাধান এবং স্বাস্থ্যবিধি প্রচার শীর্ষক শিখন বিনিময় কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় শ্যামনগর উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সুশীলন’র উপ-পরিচালক মোঃ রফিকুল হক।

ইউকে ভিত্তিক দাতা সংস্থা পেনিএ্যাপিল এর অর্থায়নে এবং বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা সুশীলন এর বাস্তবায়নে এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম আতাউল হক দোলন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আ.ন.ম আবুজর গিফারী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহিনুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এস এম এনামুল ইসলাম, পেনিএ্যাপিল’র প্রতিনিধি এ.জেড.এম সাকিল ফেরদৌস, বুড়িগোয়ালিনী ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মন্ডল, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসের উপজেলা অর্গানাইজার আনিছুর রহমান মল্লিক, প্রজেক্ট ম্যানেজার তাপস কুমার মিত্র, লিটন বিশ্বাস, প্রজেক্ট অফিসার মিজানুর রহমান, ওয়াশ প্রকল্পের ফিল্ড ফ্যাসিলিটেটর সাদিয়া সুলতানা সহ ওয়াশ প্রকল্পের উপকারীভোগীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
সাতক্ষীরায় অন্তঃস্বত্বা স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা ॥ স্বামী আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি:  সাতক্ষীরায় পরকীয়া প্রেমের কারণে সাত মাসের অন্তঃস্বত্বা এক গৃহবধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। বুধবার ভোরে সাতক্ষীরা সদরের লাবসা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ক্ষুব্ধ গ্রামবাসি নিহতের স্বামীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।
নিহতের নাম- পারভিন আক্তার (২৪)। তিনি সাতক্ষীরা সদরের রাজনগর গ্রামের জামাইপাড়ার আব্দুল খালেকের স্ত্রী ও একই গ্রামের আব্দুর রহিম ওরফে বাবুর মেয়ে।
রাজনগর জামাইপাড়ার ভ্যানচালক রফিকুল ইসলাম ও ইটভাটা শ্রমিক তরিকুল ইসলাম জানান, তার বোন পারভিন আক্তারের সঙ্গে হাজীপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে ভাটা শ্রমিক আব্দুল খালেকের আট বছর আগে বিয়ে হয়। বর্তমানে ফারজানা নামে তাদের একটি মেয়ে আছে। বোন পারভিন বর্তমানে সাত মাসের অন্তঃস্বত্বা। অভাবের কারণে তিন বছর যাবৎ খালেক সস্ত্রীক রাজনগর জামাইপাড়ায় নদীর চরভরাটি জমিতে বসবাস করতো। সম্প্রতি খালেক একই এলাকার এক নারীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে এক সপ্তাহ যাবৎ খালেকের সঙ্গে পারভিনের বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জেরে বুধবার ভোরে পারভিনকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার শরীরে কাঁথা চাপা দিয়ে বাইরের দিক থেকে দরজায় তালা লাগিয়ে ভাটপাড়ায় চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের ইটভাটায় কাজ করতে যায়।
রাজনগর জামাইপাড়ার সাইফুল ইসলাম, আব্দুস সবুর, একই গ্রামের সীমান্ত ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক মফিজুল ইসলাম ইউপি সদস্য আজিজুল ইসলাম ও রাজনগর বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন জানান, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে খালেক তার স্ত্রী পারভিনকে মারপিট করে। বুধবার সকালে তাদের মেয়ে ফারজানার কান্না শুনে তারা বাইরের দিক খেবে তালা ভেঙে ঘরে ঢোকেন। এ সময় পারভিনকে কাঁথা মোড়া অবস্থায় দেখতে পান। পারভিনের গলায় দড়ি দিয়ে শ্বাসরোধ করার মত দাগ দেখতে পান। এর পরপরই দারা ভাটপাড়া হাবিবুর রহমানের ভাটা থেকে খালেককে ধরে এসে সকালে পুলিশে সোপর্দ করেন।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, বুধবার দুপুরে পারভীন আক্তারের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী আব্দুল খালেককে আটক করা হয়েছে।#

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
সাকিবের ফেরার ম্যাচে খুলনাকে জেতালেন আরিফুল, শেষ ওভারে ৪ ছক্কা!

অনলাইন ডেস্ক : ইনিংসের শুরু থেকে কোনোভাবেই ব্যাটে-বলে করতে পারছিলেন না আরিফুল হক। একপর্যায়ে ২০ বলে মাত্র ১১ রান ছিল তার সংগ্রহ। তখন হয়তো কেউ ভাবেওনি শেষপর্যন্ত তার ব্যাটে ম্যাচ জিতবে জেমকন খুলনা। কিন্তু হয়েছে তাই। ম্যাচের শেষ ওভারে পাঁচ বলে চারটি ছক্কা হাঁকিয়ে খুলনাকে জয় এনে দিয়েছেন আরিফুল।

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে আগে ব্যাট করে ১৫২ রানের বেশি করতে পারেনি ফরচুন বরিশাল। জবাবে খুলনার ব্যাটিংও খুব একটা ভাল ছিল না। একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলছিলেন আরিফুল। শেষ ওভারে তাদের বাকি থাকে ২২ রান। মেহেদি হাসান মিরাজের করা সেই ওভারের পাঁচ বলেই চার ছক্কার মারে ২৪ রান তুলে নেন আরিফুল।

জিরো থেকে হিরো হওয়া আরিফুল খেলেছেন ৩৪ বলে ৪৮ রানের অনবদ্য ইনিংস। প্রথম ২০ বলে ১১ থেকে শেষের ১৪ বলে আরও ৩৭ রান করেছেন ডানহাতি এ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান। তার বীরত্বপূর্ণ ব্যাটিংয়েই বরিশালকে ৪ উইকেটে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের শুভসূচনা করল তারকাখচিত দল জেমকন খুলনা।

রান তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই তাসকিন আহমেদের আগুনের বোলিংয়ের সামনে পড়ে খুলনা। দুই ওপেনার এনামুল হক বিজয় (৩ বলে ৪) ও ইমরুল কায়েস (২ বলে ০) ফিরে যান প্রথম ওভারেই। প্রথম পাওয়ার প্লে’তে আউট হন দলের দুই সিনিয়র ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (১৬ বলে ১৭) ও সাকিব আল হাসান (১৩ বলে ১৫)।

পাওয়ার প্লে’র মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে অকূল পাথারে পড়ে যায় খুলনা। সেখান থেকে পঞ্চম উইকেটে ৪৪ রান যোগ করেন আরিফুল হক ও জহুরুল ইসলাম। দলীয় ৭৮ রানের মাথায় ২৬ বলে ৩১ রান করে ফেরেন জহুরুল। পরে সাহসী ব্যাটিং করেন শামীম হোসেন। হাত খুলে খেলে ৩ চার ও ১ ছয়ের মারে ১৮ বলে করেন ২৬ রান।

তবু তা যথেষ্ঠ ছিল না খুলনার জয়ের জন্য। দুই ওভারে জয়ের জন্য বাকি ছিল ২৯ রান। তাসকিনের করা ওভারের প্রথম বলে সিঙ্গেল নিয়ে শহীদুল ইসলামকে স্ট্রাইক দেন আরিফুল। চার বল ডট খেলে শেষ বলে ছক্কা মারেন শহীদুল। ফলে শেষ ওভারে সমীকরণ দাঁড়ায় ৬ বলে ২২ রান। হাতে আর কোন বোলার না থাকায় মেহেদি মিরাজকে বোলিংয়ে ডাকেন বরিশাল অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

আর এতেই হয় সর্বনাশ। মিরাজের প্রথম বলে লং অফ, দ্বিতীয় বলে স্ট্রেইট ছক্কা মেরে সমীকরণ ৪ বলে ১০ রানে নামিয়ে আনেন আরিফুল। তৃতীয় বলে এক রান হওয়ার সুযোগ থাকলেও সেটি নেননি তিনি। কেননা তার মাথায় ছিল ছক্কার মারে ম্যাচ শেষ করার পরিকল্পনা। ওভারের চতুর্থ ও পঞ্চম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে বীরত্বের সাথেই তা করেন আরিফুল।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম বলেই মেহেদি হাসান মিরাজের উইকেট হারায় বরিশাল। শফিউলের লেগস্টাম্প লাইনের ডেলিভারি লেগসাইডে ঠেলতে গিয়ে আকাশে তুলে দেন মিরাজ, ফিরতি ক্যাচ লুফে নিয়ে তার বিদায়ঘণ্টা বাজান শফিউল। সেই যে শুরু হয় বরিশালের পতন, তা আর ঠেকাতে পারেননি পরের ব্যাটসম্যানরা। তবে ভালো শুরু করেছিলেন বেশ কয়েকজন ব্যাটসম্যান।

মিরাজ প্রথম বলে ফিরে যাওয়ার পর দ্বিতীয় বলেই উইকেটে আসেন পারভেজ হোসেন ইমন। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকেন ইমন। অন্যপ্রান্তে সতর্ক সাবধানী ছিলেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। যদিও বেশিদূর যেতে পারেননি বরিশাল অধিনায়ক। প্রথম পাওয়ার প্লে’র শেষ বলে মিডঅফে ইমরুলের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ১৫ বলে ১৫ রান করা তামিম।

হতাশ করেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। দীর্ঘ ৪০৯ দিন পরে ম্যাচে ফেরা সাকিব আল হাসানের লেগস্টাম্পের বাইরের এক ডেলিভারি সজোরে হাঁকিয়ে সীমানা ছাড়া করতে পারেননি আফিফ, ধরা পড়ে যান ডিপ স্কয়ার লেগে দাঁড়ানো জহুরুল অমির হাতে। আউট হওয়ার আগে ৩ বলে করেন ২ রান। আফিফ ফিরে গেলেও অপরপ্রান্তে অবিচল ছিলেন বিশ্বজয়ী যুবাদলের ওপেনার পারভেজ ইমন।

চতুর্থ উইকেটে পারভেজ ইমন ও তৌহিদ হৃদয় যোগ করেন ৩২ রান। দলীয় ৮১ রানের সময় সাজঘরে ফেরেন ইমন। যেখানে তার একার সংগ্রহই ছিল ৫১ রান; ৪১ বলের ইনিংসটিতে ২ চারের সঙ্গে ৪টি ছক্কা হাঁকান বাঁহাতি এ ওপেনার। বরিশালের পরেরটুকু টেনে নেন তৌহিদ হৃদয়, মাহিদুল অঙ্কনরা। প্রেসিডেন্টস কাপের হিরো ইরফান শুক্কুর আউট হন ১১ বলে ১১ রান করে।

তবে মিনি ঝড় তোলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, তিন ছয়ের মারে ১০ বলে খেলেন ২১ রানের ক্যামিও ইনিংস। আরেকপ্রান্ত আগলে রাখা তৌহিদের ব্যাট থেকে আসে ২৫ বলে ২৭ রান। ইনিংসের ১৯তম ওভারে চার বলের ব্যবধানে আমিনুল বিপ্লব, তৌহিদ হৃদয় ও সুমন খানকে ফেরান শহীদুল। তখন মনে হচ্ছিল দেড়শও হবে না বরিশালের সংগ্রহ।

কিন্তু শেষ ওভারে ব্যাট হাতে চমক দেখান তাসকিন আহমেদ। একটি করে চার ও ছয় হাঁকিয়ে ৫ বলে করেন ১২ রান। যা বরিশালকে এনে দেয় ১৫২ রানের লড়াকু সংগ্রহ।

খুলনার পক্ষে বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ১৭ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন শহীদুল। এছাড়া ২টি করে উইকেট গেছে শফিউল ইসলাম ও হাসান মাহমুদের ঝুলিতে। দীর্ঘদিন পর ফেরা সাকিব ৩ ওভারে ১৮ রানের বিনিময়ে নিয়েছেন ১টি উইকেট।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
করোনায় দেশে আরও ৩২ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২২৩০

অনলাইন ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬ হাজার ৪৪৮ জনে। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২ হাজার ২৩০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনা শনাক্ত হলো মোট ৪ লাখ ৫১ হাজার ৯৯০ জনের। এ নিয়ে দেশে মোট সুস্থ ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭৭ জনে। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮১ দশমকি ১৭ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ২৬৬ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭৭ জন। মারা যাওয়া ৩২ জনের মধ্যে ২৫ জন পুরুষ ও ৭ জন নারী। এদের মধ্যে একজন বাড়িতে এবং বাকিরা হাসপাতালে মারা গেছেন।

বিভিন্ন বিভাগে যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে ঢাকায় ২৪ জন, চট্টগ্রামে ৪ জন, রাজশাহীতে ৩ জন ও রংপুরে ১ জন রয়েছেন।

বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৩১ থেকে ৪০ বছরের ১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বয়সের মধ্যে ৭ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৫ জন, ৬০ বছরের ওপরে ১৯ জন রয়েছেন। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৮৫ শতাংশ। আর মোট পরীক্ষায় এ পর্যন্ত শনাক্ত হার ১৬ দশমিক ৮৬ শতাংশ।

নতুন যে ৩২ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ২৫ এবং নারী সাতজন। এখন পর্যন্ত মোট মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ৪ হাজার ৯৫৫ জন বা ৭৬ দশমিক ৮৫ শতাংশ এবং নারী ১ হাজার ৪৯৩ জন বা ২৩ দশমিক ১৫ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মোট মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ১৮ মার্চ প্রথম একজনের মৃত্যুর কথা জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এদিকে, জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় (জেএইচইউ) থেকে প্রকাশিত সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৯১ লাখ ২৪ হাজার ১৬ জনে।

এছাড়া, কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ১৩ লাখ ৯৫ হাজার ৫১৯ জনে।

জেএইচইউ’র তথ্য অনুযায়ী, সকাল পর্যন্ত সারা বিশ্বে প্রাণঘাতী এ ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩ কোটি ৭৮ লাখ ৪৮ হাজার ৫৪২ ব্যক্তি।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। চলতি বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে মহামারি ঘোষণা করে। এর আগে ২০ জানুয়ারি জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এ পর্যন্ত দেশটিতে ১ কোটি ২৪ লাখ ১১ হাজার ২৬৭ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ২ লাখ ৫৭ হাজার ৬৫১ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

পৃথিবীর দ্বিতীয় জনবহুল দেশ ভারত রয়েছে করোনায় আক্রান্ত দেশের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে। ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল আক্রান্ত দেশের তালিকায় তৃতীয় স্থানে থাকলেও সর্বাধিক মৃতের সংখ্যায় রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে মোট আক্রান্ত প্রায় ৯১ লাখ ৪০ হাজার মানুষ এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৩৩ হাজার ৭৩৮ জন। ব্রাজিলে মোট শনাক্ত রোগী প্রায় ৬০ লাখ ৮৮ হাজার এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৬৯ হাজার ৪৮৫ জনের।

রোগী শনাক্তের দিক দিয়ে তালিকার পরবর্তী কয়েকটি দেশ হলো- ফ্রান্স ( প্রায় ২১ লাখ ৯৬ হাজার), রাশিয়া (প্রায় ২০ লাখ ৯৭ হাজার), স্পেন (১৫ লাখ ৮২ হাজারের বেশি) ও যুক্তরাজ্য (১৫ লাখ ৩১ হাজারের বেশি)।

মৃতের দিক দিয়ে বিশ্বে চতুর্থ স্থানে আছে মেক্সিকো (১ লাখ ১ হাজার ৯২৬ জন)। তারপরে যুক্তরাজ্যে ৫৫ হাজার ৩২৭ জন, ইতালিতে ৫০ হাজার ৪৫৩ জন, ফ্রান্সে ৪৯ হাজার ৩১২ জন ও ইরানে ৪৫ হাজার ২৫৫ জন মারা গেছেন।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
বেনাপোলে শীতের আমেজে ফুটপাতে পিঠা বিক্রির ধুম

বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোল বাজারের ফুটপাতে বিক্রি হচ্ছে হরেক রকমের পিঠা।সন্ধ্যা হলে ফুটপাতের প্রতিটি দোকানেই পড়ে পিঠা বিক্রির ধুম।শীতের টানা তিন মাস চলবে পিঠা বিক্রি। এসকল পিঠার সাথে থাকছে বিভিন্ন রকমের ভর্তা ও সরষে বাটা।সরেজমিনে বেনাপোল বাজার এলাকা ঘুরে দেখা গেছে ফুটপাতের বিভিন্ন জায়গায় বসেছে চিতই,ভাপা,তেলের পিঠা। ফুটপাতে বসে পিঠা যেমন খাচ্ছে তেমনই প্যাকেটে ভরে গরম পিঠা নিয়ে যাচ্ছে বাড়িতে। শীত মানেই পিঠা। আর এই পিঠার স্বাদ নিতে ফুটপাতে শত শত মানুষ। বর্তমানে বেনাপোল পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে এখন চিতই ও ভাপাসহ শীতকালীন পিঠা বিক্রির ধুম পড়েছে।
বেনাপোলের পিঠা বিক্রেতা সিদ্দিক বলেন, শীতের তিন মাস আমরা বিভিন্ন রকম পিঠা বিক্রি করি।প্রতি পিস পিঠা ৩টাকা।প্রতিদিন ১৫শ থেকে ১৮শ টাকার মত পিঠা বিক্রি হয়।শীত যত বেশি পড়বে পিঠাও বেশি বিক্রি হবে।ক্রেতাদের সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে।তবে অন্য পিঠার চেয়ে ভাপা ও চিতই পিঠার চাহিদা একটু বেশি। শুধু শীতে পিঠা বিক্রি করি। আর গরমে অন্যান্য খাবার বিক্রি করে সংসার চালায় আমি।
মোঃ নাজমুল ইসলাম নামে একজন পিঠা খেতে খেতে বলেন, শীতের সময় বাজারে সহজেই সকল পিঠা পাওয়া যায়। এই ঠান্ডায় গরম গরম পিঠার স্বাদ নিতে খুবই ভালো লাগছে। বন্ধুদের সঙ্গে একত্র হয়ে পিঠা খেতে ভালো লাগে। ব্যস্ততার কারণে বাড়িতে পিঠা খাওয়ার সময় না পাওয়ায় বাজারে এসে নানা ধরণের পিঠা কিনে স্বাদ নেওয়ার চেষ্টা করছি।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
দেবহাটায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে কৃষকলীগের আনন্দ মিছিল

দেবহাটা ব্যুরো : প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও খাদ্য মন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদারকে আন্তরিক কৃতঞ্জতা ও ধন্যবাদ জানিয়ে দেবহাটা উপজেলা কৃষকলীগের পক্ষে এক আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৩ টায় উপজেলা কৃষকলীগের আয়োজনে ধান-চাল ক্রয় কমিটিতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কৃষক সংগঠনের প্রতিনিধি সম্পৃক্ত করায় একটি মিছিল ঈদগাহ বাজার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করেন। উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক ও ইউপি সদস্য নির্মল কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনের নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব মুজিবর রহমান, সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, প্রস্তাবিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতন,সদস্য ও ইউপি সদস্য আর্দুল করিম, কৃষকলীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রব লিটু, সদস্য সচিব হুমায়ুন কবির হীম, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক বিজয় ঘোষ, উপজেলা তাঁতী লীগের আহবায়ক আশরাফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক আরিফুজ্জামান, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এএইচ সোহাগ, উপজেলা কৃষকলীগের সদস্য এমএ মামুন, মিজানুর রহমান, সেলিম হোসেন, হোসেন আলী, আসলাম হোসেন বাপ্পি, আব্দুল্লাহ, ফারহাদ হোসেন, আরিবুল্লাহ গাজী, শওবাত হোসেন, তাপস কুমার পিন্টু, অমোক কুমার ঘোষ, অশিত চক্রবত্তী, শফিকুল ইসলাম খোকন প্রমুখ।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
সাতক্ষীরায় টাকা উঠাতে এসে ২৪ হাজার টাকা খোয়ালেন অমল-চিন্তা দম্পতি

নিজস্ব প্রতিনিধি : সারা জীবনের তীলে তীলে জমানো টাকা উঠাতে এসে ২৪ হাজার টাকা খোয়ালেন তালার অমল-চিন্তা দম্পতি। মঙ্গলবার সাতক্ষীরা পোস্ট অফিসে এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী দরিদ্র অমল বাছাড় তালা উপজেলার কৈখালী গ্রামের বাসিন্দা।
তারা জানান, মেয়ের বিয়ের তীলে তীলে জমানো টাকা পোস্ট অফিসে তুলেতে এসেছিলেন। অফিসের কর্মকর্তা ৪৮ হাজার ৭০০ টাকা গুনে তাদের হাতে দেওয়ার পর ৩/৪ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি হাতে ১ হাজার টাকার নোট নিয়ে টাকা খুচরা করবে বলে ঘুর থাকে। একপর্যায়ে তার হাত থেকে টাকার ব্যান্ডেল নিয়ে তার মধ্যে থেকে ২৪ হাজার বের করে কৌশলে তাদের পকেটে ঢুকিয়ে কিছু বুঝে ওঠার পূর্বেই দ্রুত সটকে পড়েন। বিষয়টি তাৎক্ষনিক অফিসের সকলকে জানানো হলেও তার মধ্যেই ওই প্রতারক পালিয়ে যান। যদি এঘটনায় জড়িত সন্দেহে অফিসের স্টাফ নারায়নে দিকে আঙ্গুল তুলেছেন ভুক্তভোগী অমল বাছার। এঘটনার পর থেকে অমল ও চিন্তা রানী পড়েছেন গভীর চিন্তায়। কিভাবে কন্যাকে পাত্রস্থ করবেন সেটি এখন তাদের একমাত্র ভাবনা।
তবে নারায়ন বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমি আরো তাদের টাকা তুলতে সহযোগিতা করেছি।
সাতক্ষীরা প্রধান পোস্ট অফিসের পোস্ট মাস্টার কামরুল আহছান বলেন, ঘটনা শোনার সাথে সাথে সিসিটিভি ফুটেজ চেক করে প্রতারককে সনাক্ত করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু প্রতারকের মুখে মাস্ক থাকায় সেটি মুখ ভালো বোঝা যাচ্ছে না। এখানে বার বার এধরনের ঘটনা ঘটলেও কোন নিরাপত্তা বাড়ানো হয় না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন আমরা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করিয়েছি। তারা পদক্ষেপ না নিলে আমরা কি করব।
উল্লেখ্য: সাতক্ষীরা পোস্ট অফিস থেকে টাকা তুলে ইতোপূর্বে অনেকেই নি:শ্ব হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। দীর্ঘদিন ধরে পোস্ট অফিসে এধরনের ঘটনা ঘটলেও কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সাতক্ষীরার সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ। অবিলম্বে সেখানে নিরাপত্তা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তারা।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest
জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান বাবু ইউনিয়নবাসীর ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত

কলারোয়া প্রতিনিধিঃ কলারোয়ার উপজেলার ১নং জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শামছুদ্দিন আল মাছুদ(বাবু) আমেরিকা সফর শেষে দেশে ফেরায় ইউনিয়ন বাসী তাকে ফুলের শুভেচ্ছায় দিয়ে বরন করে নিলেন।
(২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার)বিকাল ৪ঘটিকার সময় ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে এসে উপস্থিত হন জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শামছুদ্দিন আল মাছুদ বাবু।তিনি দৃর্ঘ ১মাস আমেরিকা সফর শেষে প্রতিক্ষায় থাকা ইউনিয়ন বাসীদের উপেক্ষা না করে সরাসরি ইউনিয়ন পরিষদে এসে কর্মিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং ইউনিয়ন বাসীর সুখ দুঃখের খোঁজ খবর নেন।সব শেষে ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে উপস্থিত ইউনিয়ন বাসির উদ্দেশ্য করে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বক্তব্য রাখেন ।তিনি তার বক্তব্যে বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীক যাকে দিবেন আমি ও আমার ইউনিয়ন বাসীদের নিয়ে তার পক্ষে নৌকার প্রতীক নিয়ে এক সাথে কাজ করবো।তিনি আরও বলেন সাম্প্রদায়ীক সম্প্রতি বজাই রেখে সকল ইউনিয়ন বাসীকে নৌকার পক্ষে কাজ করবার জন্য উদ্দ্যত আহ্বান করেন।

0 মন্তব্য
0 FacebookTwitterGoogle +Pinterest